Corona Virusআন্তর্জাতিকজাতীয়শিক্ষা ও স্বাস্থ্য

আর কিছু দিন পরেই বাজারে আসছে করোনা ভ্যাকসিন, কিন্তু আপনি কী জানেন তার দাম কত? এক্ষুণি দাম জেনে নিন

GNE NEWS DESK: রবিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, এ দেশে সংক্রমিত হয়েছেন মোট ৮১ লক্ষ ৮৪ হাজার ৮৩ জন। এর মধ্যে শুধুমাত্র গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে ৪৬ হাজার ৯৬৩ জনের। এই মুহূর্তে দেশে সংক্রিয় কোভিড রোগীর সংখ্যা ৫ লক্ষ ৭০ হাজার ৪৫৮। শনিবারের থেকে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা (৪৬ হাজার ২৬৮) বেড়েছে। এ দিন স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪৭০ জনের। এ দিনের এই পরিসংখ্যান যোগ করলে দেশ জুড়ে মোট ১ লক্ষ ২২ হাজার ১১১ জন কোভিড রোগীর মৃত্যু হল।

পরিসংখ্যান বলে দিচ্ছে, টিকা এই করোনাসুরকে বধ করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে চলেছে। কিন্তু বিশ্বের জনসংখ্যা ও বিশ্বব্যাপী করোনার বিস্তৃতি একথা প্রমান করে এই টিকাপ্ৰদান এক মস্ত বড় চ্যালেঞ্জ। তাই টিকাই এখন আলোচনা ও গবেষণার বিষয়বস্তু।


বিভিন্ন দেশ করোনা প্রতিষেধক তৈরি করছে বলে জানালেও এখন‌ও পর্যন্ত বাজারে আসেনি কিছুই। আর তার আগেই জোর আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে, করোনা ভ্যাকসিনের দাম কত হতে চলেছে তা নিয়ে।

প্রাথমিক ভাবে সিদ্ধান্ত হয়েছে, চিন থেকে কোনও মতেই প্রতিষেধক কেনা হবে না। আবার অন্যান্য দেশ থেকে তা কেনার খরচও বিপুল। পাশাপাশি মাথায় রাখতে হচ্ছে, বিপুল পরিমাণ টিকা একা উৎপাদন করাটা ভারতের পক্ষে অত্যন্ত কঠিন। এ সব কারণেই আন্তর্জাতিক স্তরে যোগাযোগ রেখে এগোতে চাইছে ভারত। কারণ আমাদের জনসংখ্যা ও চাহিদা অনুযায়ী বিপুল ব্যয়ভার।

বিভিন্ন সূত্রে বলা হচ্ছে, জন প্রতি টিকার দাম পড়তে পারে ৪৫০ টাকা থেকে ৫৫০০ টাকা পর্যন্ত। সূত্রের খবর, মার্কিন সংস্থা ‘মডার্না’ খুব শীঘ্রই বাজারে টিকা আনার দাবি করছে। তাদের করোনা টিকার(covid-19 vaccine) mRNA-1273 প্রতি ডোজের দাম পড়তে পারে ৩২ ডলার থেকে ৩৭ ডলার। অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় যার দাম দাঁড়ায় ২,৭৩৮ টাকা। এই অবস্থায় স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, করোনা প্রতিরোধের জন্য দুই ডোজ নিতে হতে পারে মডার্নার তৈরি ভ্যাকসিনটি। তা কিনতে ভারতীয় মুদ্রায় দাম পড়বে জন প্রতি প্রায় ৫ হাজার টাকা। অ্যাস্ট্রোজেনেকার (astrazeneca) সঙ্গে যৌথভাবে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের (serum institute) তৈরি করোনা টিকার দাম ৭০০ থেকে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত পড়তে পারে বলে জানা যাচ্ছে। ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান আদর পুণাওয়ালা দু’দিন আগে জানিয়েছেন, ডিসেম্বরের মধ্যে কোভিডের প্রতিষেধক মিলবে বলে তাঁদের আশা। তবে সেপ্টেম্বরেই তিনি জানিয়েছিলেন, সব দেশবাসীকে প্রতিষেধক দিতে হলে অন্তত ৮০ হাজার কোটি টাকার ব্যবস্থা রাখতে হবে সরকারকে। ডিস্ট্রিবিউশনের চূড়ান্ত লাইসেন্স পাওয়ার পরেই এই বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হবে। 

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel