More

    চুলের সব সমস্যার একটাই সমাধান ‘পেঁয়াজের রস’

    পেঁয়াজ একটি নিরাপদ, প্রাকৃতিক এবং সাশ্রয়ী মূল্যের ঘরোয়া প্রতিকার যা আপনার চুলের জন্য দারুণ হতে পারে। পেঁয়াজের রস নতুন চুল গজানো এবং নতুন চুলের বৃদ্ধির জন্য একটি নিশ্চিত পদ্ধতি। এটি চুলের সমস্যা মোকাবেলার অন্যতম সেরা উপায়। পেঁয়াজের রস অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এনজাইম ক্যাটালেসের মাত্রা বাড়িয়ে চুলের বৃদ্ধিকে উন্নত করে। এটি সালফার সমৃদ্ধ উপাদান দিয়ে চুলের ফলিকলকে পুষ্ট করে। সমৃদ্ধ সালফার উপাদান চুল পাতলা ও ভাঙা কমাতেও সাহায্য করে।

    spot_img

    Must Read

    চুল নিয়ে বিভিন্ন রকম সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকেই। চুল পড়া, খুশকি, চুলের রুক্ষতা ইত্যাদি আরো কতশত সমস্যা। এই সমস্যা দূর করতে কত কিনা করেন, কিন্তু কিছুতেই সমাধান মেলে না। এক্ষেত্রে আপনাকে সহায়তা করতে পারে পেঁয়াজের রস।

    পেঁয়াজ একটি নিরাপদ, প্রাকৃতিক এবং সাশ্রয়ী মূল্যের ঘরোয়া প্রতিকার যা আপনার চুলের জন্য দারুণ হতে পারে। পেঁয়াজের রস নতুন চুল গজানো এবং নতুন চুলের বৃদ্ধির জন্য একটি নিশ্চিত পদ্ধতি। এটি চুলের সমস্যা মোকাবেলার অন্যতম সেরা উপায়। পেঁয়াজের রস অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এনজাইম ক্যাটালেসের মাত্রা বাড়িয়ে চুলের বৃদ্ধিকে উন্নত করে। এটি সালফার সমৃদ্ধ উপাদান দিয়ে চুলের ফলিকলকে পুষ্ট করে। সমৃদ্ধ সালফার উপাদান চুল পাতলা ও ভাঙা কমাতেও সাহায্য করে।

    তবে যদি আপনার পেঁয়াজের প্রতি অ্যালার্জি থাকে তবে চুলে পেঁয়াজের ব্যবহার না করাই ভালো। চুলের সমস্যা দূর করার জন্য কীভাবে পেঁয়াজের রস ব্যবহার করবেন, চলুন জেনে নেয়া যাক-

    খুশকি দূর করে
    খুশকি দূর করতে সাহায্য করে টি-ট্রি অয়েল, এদিকে চুলে পুষ্টি যোগায় নারকেল তেল। পেঁয়াজের রসের সঙ্গে এই দু’টি তেল মেশালে তা আরো বেশি কার্যকরী হয়ে ওঠে। খুশকি দূর করার জন্য আর দুশ্চিন্তার প্রয়োজন নেই, প্রয়োজন হবে ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস, ২ টেবিল চামচ নারকেল তেল ও ৪-৫ ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল। এরপর সব উপকরণ ভালোভাবে মেশাতে হবে। মেশানো হয়ে গেলে মিশ্রণটি মাথার ত্বকে ভালোভাবে মাসাজ করুন। ঘণ্টাখানেক পর চুল ভালো করে ধুয়ে নিন।

      চর্ম রোগ দাদ থেকে মুক্তির অনবদ্য উপায়

    মাথার ত্বক আর্দ্র রাখতে

    চুল ময়েশ্চারাইজ ও কন্ডিশন করতে অলিভ অয়েল এবং পেঁয়াজের রসের মিশ্রণ ভীষণ উপকারী। সেইসঙ্গে এই মিশ্রণ মাথার ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করতে এবং খুশকি তাড়াতেও সাহায্য করে। মিশ্রণটি তৈরির জন্য লাগবে ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল ও ৩ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস।

      চর্ম রোগ দাদ থেকে মুক্তির অনবদ্য উপায়

    উপকরণ দু’টি ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে মাথার ত্বকে মাসাজ করতে হবে। এতে মাথার ত্বকে রক্ত চলাচল ভালো হয়। মাসাজ করা হয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে চুল ধুয়ে ফেলবেন না যেন! এভাবেই রেখে দিন ঘণ্টা দুয়েক। এরপর কোনো সুন্দর গন্ধযুক্ত মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল পরিষ্কার করে নিন। কারণ পেঁয়াজের গন্ধ আপনার বিরক্তির কারণ হতে পারে। গন্ধ দূর করার জন্য শ্যাম্পুর সঙ্গে মিশিয়ে নিতে পারেন এসেন্সিয়াল অয়েল।

    চুলের স্বাস্থ্য ফিরিয়ে আনে

    পেঁয়াজের রস চুলের জন্য উপকারী তো বটেই, আলুর রসও কিন্তু কম উপকারী নয়। আলুর রস চুলের ফলিকল স্টিম্যুলেট করে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। আলুর রসে থাকে ভিটামিন বি, ভিটামিন সি এবং জিঙ্ক অক্সাইড। এসব উপাদান চুলের জন্য ভীষণ কার্যকরী। মিশ্রণ তৈরির জন্য প্রয়োজন হবে ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস ও ২ টেবিল চামচ আলুর রস। পেঁয়াজ এবং আলুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার পরিষ্কার তুলার সাহায্যে ভালো করে স্ক্যাল্পে লাগান। দশ থেকে পনেরো মিনিট ভালোভাবে মাসাজ করুন। এভাবে দুই ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করে নিন।

    - Advertisement -

    Latest News

    গাড়িতে উঠলেই বমি হয়? বমি থেকে মুক্তি দিতে পারে এই ঘরোয়া টেকনিক

    প্রয়োজনে কিংবা শখের বসে বাইরে কোথাও ঘুরতে গেলে সঙ্গে নিজের শিশুকেও নিয়ে যান অনেকেই। কিন্তু শিশুকে গাড়িতে চড়ালেই দেখা...
    - Advertisement -

    More Articles Like This

    - Advertisement -