প্রথম পাতা করোনা আপডেট আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
শিক্ষা ও স্বাস্থ্যরাজ্য

শুধু কোভিডেই নয়, “ইয়াস” পরবর্তী সময়েও সমানে থেকেই লড়াই করছেন রাজ্যের নার্সিং অফিসাররা

For the past almost two years, all the nursing officers in the state have been fighting from the very front row against covid. In addition to that cowardly fight, the state's nursing officers came forward to distribute 'relief materials' and 'nursing assistance' camps in remote areas of the Sundarbans.

GNE NEWS DESK: বিগত প্রায় দু বছর ধরে কোভিড মোকাবিলায় একেবারে সামনের সারিতে থেকে লড়াই করছেন রাজ্যের সমস্ত নার্সিং অফিসারেরা। সেই কোভিড লড়াইয়ের পাশাপাশি সুন্দরবনের যশ বিধ্বস্ত প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে ‘ত্রাণ সামগ্রী’ বিতরণ ও ‘নার্সিং সহায়তা’ ক্যাম্পে এগিয়ে এলেন রাজ্যের নার্সিং অফিসাররা।

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বাসন্তীর “বন্ধুমহল ক্লাবের” সাথে একযোগে হাতে হাত রেখে এগিয়ে এসেছেন “ওয়েস্ট বেঙ্গল নার্সেস ফোরাম” ফেসবুক গ্রুপের রাজ্যের বিভিন্ন নার্সিং অফিসাররা।

রাঙাবেলিয়া, ছোট মোল্লাখালি ,আমতলী ইত্যাদি সুন্দরবনের প্রত্যন্ত জায়গায় প্রায় সাড়ে 400 পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে আলু, চাল, তেল, ডাল ,নুন ইত্যাদি বিতরণের পাশাপাশি “নার্সিং সহায়তা” ক্যাম্পের আয়োজন করেন তারা। সেখান থেকে মাক্স, সাবান, স্যানিটাইজার,ওআরএস, স্যানিটারি ন্যাপকিন ইত্যাদি বিতরণের পাশাপাশি প্রেসার, সুগার ইত্যাদি পরীক্ষারও বন্দোবস্ত করা হয়। কোভিড নিয়মাবলী মেনে চলার ব্যাপারেও গ্রামবাসীদেরকে উৎসাহিত করা হয়।

GNE

নার্সিং অফিসারদের এহেন উদ্যোগে স্বভাবতই খুশি গ্রামের সমস্ত বাসিন্দারা ও বন্ধুমহল ক্লাবের সদস্যরা। উপস্থিত নার্সিং অফিসার পার্থপ্রতিম মন্ডলের কথায় কোভিড লড়াইয়ের পাশাপাশি এই সমস্ত প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষজন এর বিপদের সময় পাশে থেকে তাঁদের সাহায্য করতে পেরে খুবই ভালো লাগছে। গ্রূপের অপর সদস্য সুজিত কুমার মাহাতো বলেন, “সারা রাজ্য জুড়েই রাজ্যের সমস্ত নার্সিং অফিসার মহামারী মোকাবিলায় লড়াই করে চলেছেন। কিন্তু এহেন প্রাকৃতিক দুর্যোগেও মানুষের পাশে দাঁড়ানোটা আমাদের মানবিক দায়িত্ত্ব ও কর্তব্য মনে করে সাধ্যমতো আমরা পাশে দাঁড়িয়েছি।

সারাদিন অক্লান্ত পরিশ্রমের পর নার্সিং অফিসার শুভ্রকান্তি বেরা বলেন,স্থানীয় “বন্ধুমহল ” ক্লাবের সাথে কাজ করতে পেরে আমাদের খুবই ভালো লেগেছে।অপর সদস্য সৌম্যদীপ দে বলেন, “কোভিডে অক্লান্ত পরিশ্রম ও এহেন প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের পাশাপাশি যেকোনো প্রতিকূল পরিস্থিতিতে এভাবেই নার্সিং অফিসারেরা পাশে আছে এবং থাকবে।”

Related Articles

x