প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
ভোটযুদ্ধ

১৯৫৭ সালে পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় বিধানসভা নির্বাচন, বামেরা বেগ দিয়েছিল বিধান রায়কে

GNE NEWS DESK: ১৯৫৭ সাল। পশ্চিমবঙ্গে দ্বিতীয় বিধানসভা নির্বাচন। ১৯৫২ সালে প্রথম বার নির্বাচিত হওয়ার পরে বিধান রায়ের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকার প্রধানত উন্নয়নমূলক কাজকেই গুরুত্ব দিয়েছিল। শুরু হয় দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চল, দুগ্ধ প্রকল্প, নতুন রাস্তা-সেতু নির্মাণ প্রভৃতি।

কিন্তু তাতেও বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসা সরকার সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারে নি। ফলে কংগ্রেসের বিরুদ্ধ জনমত তৈরি হতে থাকে। বামপন্থী দলগুলি প্রচার চালায় প্রধানত পুনর্বাসন সমস্যা ও বেকারত্ব নিয়ে। কংগ্রেসকে তা যথেষ্ট চাপে ফেলেছিল।

এই সময়েই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বাংলা ও বিহার সংযুক্তিকরনের। বিধান রায় এই প্রস্তাবের পক্ষে সমর্থন জানান। শুরু হয় রাজ্য জুড়ে তীব্র আন্দোলন। একই সময়ে ট্রাম ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদও শুরু হয় আন্দোলন। ১৯৫৬ সালে পুরুলিয়া পশ্চিমবঙ্গের অন্তর্ভুক্ত হয় । কিন্তু তারই জেরে যেভাবে আন্দোলন হরতাল হতে থাকে তার প্রভাবে বাংলা বিহার সংযুক্তির প্রস্তাব তুলে নিতে বাধ্য হয় সরকার। ট্রাম ভাড়া বৃদ্ধি বিষয়ক আন্দোলন দমন করতে তলব করা হয় সেনাবাহিনী। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে শেষ পর্যন্ত কংগ্রেস সরকার ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে বাধ্য হয়।

এই আন্দোলনের ফলে যথেষ্ট প্রভাব পড়েছিল ১৯৫৭ র বিধানসভা নির্বাচনে। কংগ্রেস জিতলেও তাদের একক জনপ্রিয়তা হ্রাস পেয়েছিল। এমনকি স্বয়ং বিধানচন্দ্র রায়কেও জেতার জন্য যথেষ্ট বেগ পেতে হয়েছিল। দ্বিতীয় বিধানসভা নির্বাচনে বিধান রায় বউবাজার কেন্দ্র থেকে সিপিআই প্রার্থী শ্রমিক নেতা মহম্মদ ইসমাইলের বিরুদ্ধে মাত্র ৫৪০ ভোটে জয়ী হন। আর দ্বিতীয় বিধানসভা নির্বাচনের পর জ্যোতি বসু বিধানসভার প্রথম বিরোধী দলনেতার স্বীকৃতি পান।

উক্ত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল দুটি বাম জোট – সংযুক্ত বাম নির্বাচন কমিটি। যা ছিল ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি, প্রজা সোশ্যালিস্ট পার্টি, সারা ভারত ফরওয়ার্ড ব্লক, মার্ক্সবাদী ফরওয়ার্ড ব্লক ও বিপ্লবী সমাজতন্ত্রী দলের জোট। অন্যটি সংযুক্ত বামফ্রন্ট। যা সোশ্যালিস্ট ইউনিটি সেন্টার অফ ইন্ডিয়া, ভারতের বলশেভিক পার্টি, রিপাবলিকান পার্টি ও ডেমোক্রেটিক ভ্যানগার্ডের জোট ছিল। এই নির্বাচনে একটি তৃতীয় জোটও করেছিল। ভারতীয় জন সংঘ, অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভা ও ভারতের বিপ্লবী কমিউনিস্ট পার্টি একযোগে ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক পিপল’স ফ্রন্ট নামে জোট তৈরি করেছিল।

১৯৫৬ সালে পুরুলিয়া বাংলার সাথে সংযুক্ত হওয়ার ফলে দ্বিতীয় বিধানসভা নির্বাচনে আসন সংখ্যা ২৩৮টি থেকে বেড়ে হয় ২৫২টি। নির্বাচনে কংগ্রেস জিতে ছিল ১৫২টি আসন এবং সিপিআই জিতে ছিল ৪৬টি আসন।

একই রকমের খবর