আন্তর্জাতিকবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ভারতীয় কর্মীদের বার্তা দিল Tiktok

GNE NEWS DESK:পূর্ব লাদাকের গালোয়ান উপত্যকায় 15 ই জুন ভারতীয় সেনাবাহিনী ও চীন সেনাবাহিনীর সংঘর্ষের পর ভারত সরকার চীনের মোট 59 টি অ্যাপ্লিকেশন ভারতবর্ষে নিষিদ্ধ করে। এভাবে চীনের অর্থনীতি ক্রমশ ধসে পড়ার মাস্টার স্ট্রোক দিল বিজেপি সরকার। এমতাবস্থায় টিকটকের সি ই ও একটি চিঠি লিখলেন ভারতবর্ষে এই অ্যাপ্লিকেশনটির কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে।

সম্প্রতি বাইট ডান্সের CEO সংস্থার ওয়েবসাইটে একটি পোস্টে বলেছেন “টিকটকে আমাদের কর্ম প্রচেষ্টা পরিচালিত হয় আমাদের প্রতিশ্রুতি দ্বারা ইন্টারনেটে গণতান্ত্রিকীকরণের জন্য। বহুলাংশে আমরা বিশ্বাস করি আমরা সফল হয়েছি। যাইহোক, আমরা আমাদের লক্ষ্য এবং প্রতিশ্রুতি নিয়ে সংকল্পবদ্ধ রয়েছি এবং টিকটকের ভারতীয় কর্মকর্তাদের উদ্বেগের সমাধানের জন্য কাজ করছি। টিকটক ভারতীয় আইন মেনেই সমস্ত তথ্য গোপন ও ব্যবহার কারীর সুরক্ষা দিয়ে থাকে। এই অ্যাপ্লিকেশনটিতে গোটা বিশ্বে 100 মিলিয়ন এরও বেশি মানুষ তাদের কর্মকুশলতা শেয়ার করে থাকেন। তিনি আরও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে ভবিষ্যতে এই অ্যাপ্লিকেশনটি ভারতবর্ষে যেন আরও চালু হয় তার ব্যবস্থা করবেন।

চিনা অ্যাপ্লিকেশন বন্ধের ঘোষণার এক মিনিটের মধ্যেই ভারতীয় গভর্মেন্টের টিক টক একাউন্ট MyGov (1.1m followers) ডিজেবল করে দেয়া হয়। আর তার ঠিক একদিন পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই ঘটনাটিকে চীনের সাথে ব্যবহারের ‘উপযুক্ত প্রক্রিয়া’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি চীনা পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন। ভারতবর্ষকে আত্মনির্ভর হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

এখন করোনার আতঙ্কে ধুঁকতে থাকা সাধারণ মানুষের কাছে এটাই দেখার ভারতীয় সরকার কি আবার ভারতবর্ষের চিনা অ্যাপস ব্যবহারের ছাড়পত্র দেবেন।

[qws]Tags: টিকটক, টিকিটের CEO এর বার্তা

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel