জেনে নিন

আপনি কি কুমড়ো খান ? জেনে নিন কুমড়োর উপকারিতা ও অপকারিতা

কুমড়ো রান্নাঘরে বিভিন্ন ধরণের খাবার তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। একই সাথে, চিকিৎসকরা কুমড়ার গুণাবলীর কারণে স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী মনে করেন। আজ আমরা কুমড়োর উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে আপনাকে বলবো।

কুমড়োর উপকারিতা:
১. অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহে ভরা কুমড়ায় মূলত বিটা ক্যারোটিন থাকে, যাতে ভিটামিন এ থাকে।বিটা ক্যারোটিন একটি অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যা দেহে ফ্রি র‌্যাডিক্যালগুলি মোকাবেলায় সহায়তা করে।
2. দীর্ঘকালীন জ্বরেও কুমড়ো কার্যকর।
৩. কুমড়োয় এমন কিছু খনিজ থাকে যা মনের স্নায়ু শিথিল করে। যদি আপনাকে আরাম করতে হয় তবে আপনি কুমড়ো খেতে পারেন। ৪. বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে কুমড়ো হৃদরোগীদের জন্য খুব উপকারী। এটি কোলেস্টেরল হ্রাস করে, শীতল এবং মূত্রবর্ধক।
৫. কুমড়ো রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং অগ্ন্যাশয়কে সক্রিয় করে। এ কারণেই ডাক্তাররা ডায়াবেটিস রোগীদের কুমড়ো খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

৬. কুমড়ো খেলে দাঁত, শক্ত হাড়, টিস্যু এবং ত্বকের জন্য উপকারী হতে পারে।
৭ কুমড়ো খেলে চোখের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতেও সহায়ক করে।
৮. কুমড়ো রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য শরীরে রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা শক্তিশালী করে।

কুমড়োর অপকারিতা :
কুমড়োর উপকারিতা কেবল তখনই কাজে লাগবে যখন এটি কম পরিমাণে খাওয়া হয়। অতিরিক্ত পরিমাণে কুমড়ো খেলে শরীরের ক্ষতিও হতে পারে। যাদের রক্তে নিম্ন স্তরের চিনি রয়েছে তাদের এটি গ্রহণ করা এড়ানো উচিত, কারণ কুমড়োতে মিথেনল নামক একটি নির্যাস থাকে যা রক্তে গ্লুকোজের উপস্থিতি হ্রাস করতে পারে।কুমড়োতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-এ থাকে, অতিরিক্ত ভিটামিন আমাদের শরীরের পক্ষে ভালো নয়। কুমড়ো খেলে অ্যালার্জি হতে পারে।

Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Close