কিষাণ মার্চ-এর সমর্থনে প্রচার চন্দ্রকোনাতে

কিষাণ ও ক্ষেতমজদুর সংগঠনের ডাকে পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা এলাকায় কিষাণ মার্চ-এর সমর্থনের পাশাপাশি এনআরসি, সিএএ প্রতিরোধের প্রচার করে। সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রচার করা হয়, সার–বীজ–তেল সহ কৃষিপণ্য উৎপাদনকারী দ্রব্যসামগ্রীর দাম যেমন বেড়েছে ভয়ঙ্কর গতিতে, তেমনি কৃষিপণ্যের লাভজনক দাম পাওয়ার কোনও ব্যবস্থাই করেনি রাজ্য সরকার৷ ক্ষমতায় আসার আগে মোদিজি বলেছিলেন, কৃষিপণ্য উৎপাদনের খরচের উপর ৫০ শতাংশ লাভ পাওয়ার ব্যবস্থা সরকার করবে৷

কিন্তু তা করা তো দূরের কথা সরকার সমস্ত সংগ্রহ ব্যবস্থাকেই কার্যত ব্যক্তিগত ব্যবসায়ীদের হাতে তুলে দিয়েছে৷ ফলে দেশের কোটি কোটি মধ্য–নিম্ন–প্রান্তিক কৃষকরা বাধ্য হচ্ছেন তাঁদের ফসল জলের দরে বিক্রি করে দিতে৷ ফলে উৎপাদনের খরচ বৃদ্ধি ও ফসলের দাম না পাওয়া – এই দুইয়ের ফলে কৃষক হয়ে পড়ছে ঋণগ্রস্ত ৷ আর এই ঋণের চাপে তাঁরা আত্মহত্যার বেদনাদায়ক পথ গ্রহণে বাধ্য হচ্ছেন৷ কংগ্রেস আমলেও দেশের লক্ষ লক্ষ কৃষক আত্মহত্যা করেছিলেন৷

ফসলের ন্যায্য দাম, সস্তায় কৃষি বিদ্যুত, কৃষি ঋণ মকুব, সার বীজ কীটনাশকের দাম কমানো সহ একাধিক দাবিতে 1ও 2 মার্চ কিষাণ মার্চ করবে অল ইন্ডিয়া কিষাণ ও ক্ষেতমজদুর সংগঠন। জয়নগর, মেচেদা, হাবড়া থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দিবে কিষাণ মার্চ। এই কর্মসূচীকে সামনে রেখে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা জুড়ে চলছে দেওয়াল লেখা, হাটে বাজারে প্রচার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel