জেলা

জরায়ু ক্যান্সারের অস্ত্রোপচার নজির গড়লো শালবনি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল

শালবনি:বর্তমানে সারা বিশ্বজুড়ে যখন করোনা ভাইরাস ভয়ঙ্কর মহামারীর আকার ধারণ করে সমগ্র মানব জাতিকে দংশন করছে এবং এর বিষাক্ত ছোবলে দিনের পর দিন মৃত্যুর মিছিল বয়ে চলেছে। এই পবিত্র ধরাধাম যেন ক্রমশ মৃত্যু পুরীতে পরিণত হচ্ছে। তখন পুনরায় নতুন করে চিকিৎসায় আশার আলো দেখালেন শালবনি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের ডাক্তার বাবুরা ।

উমা রানী জানা নামের বাসুদেবপুর , পটাশপুরের ৬৫ বৎসরের এক মহিলা জরায়ুতে মারাত্মক ক্যান্সার নিয়ে চিকিৎসা ও অপারেশন করাতে গিয়েও ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসেন। এক মাস আগে ক্যান্সার ধরা পড়ার পর ডাক্তার বাবুরা নির্দেশ দেন যে, যত শীঘ্রই সম্ভব অপারেশন ও রেডিওথেরাপি আবশ্যিক। কিন্তু বর্তমানে রাজ্যে করোনা সংক্রমণের ফলে সরকারি কোনো হাসপাতালে এই অপারেশন হচ্ছে না। অবশেষে কলকাতার নামকরা এক প্রাইভেট হাসপাতালে কেবল মাত্র অপারেশন ফিজ বাবদ ৫ লক্ষ টাকা ধার্য করেন। সর্বসাকুল্যে সেটা বেশ কয়েক গুন গিয়ে দাঁড়ায় । যা জোগাড় করতে গিয়ে পুরো পরিবারকে সর্বস্বান্ত হয়ে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে পড়ার সামিল হতে হতো। বাধ্য হয়ে গত ২৫/০৪/২০২০ শনিবার সকাল ৮টা১০ মিনিটে শালবনি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি হয়। রুগীর অবস্থার ক্রমশ অবনতি হতে থাকে, এমতাবস্থায় হাসপাতালের মেডিক্যাল হেড ডা: অর্ক দাসের নেতৃত্বে, ডা: সৌভিক দাস ,ডা: বরুন মান্ডি এই তিন সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড তৈরি করে টাটা ক্যান্সার হাসপাতালের পরামর্শ নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নেন। সকাল ১০ টা থেকে ১২টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত দুই ঘন্টা তিরিশ মিনিটের অপারেশন সম্পূর্ণ ও সফল হয়। অপারেশন করে ডাক্তার বাবুরা বলেন যে জরায়ুর বাইরে আর অন্যত্র কোথাও তেমন বাজেভাবে সংক্রমণ ছড়ায়নি । বর্তমানে রুগীটি সুস্থ ও স্বাভাবিক রয়েছে।

সম্ভবত এই ধরণের ঝুঁকিপূর্ণ ক্যান্সার অপারেশন সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের মধ্যে শালবনিতেই প্রথম। যাহা আমাদের শালবনিবাসী সকলের কাছেই খুশির খবর ও গর্বের বিষয়।

https://youtu.be/uYR3_aVakKU


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Close