জেলা

ভিন রাজ্যের কর্মস্থল থেকে বাড়ি ফেরার চেষ্টা, নিখোঁজ পূর্ব মেদিনীপুরের কিশোর

অভাবের সংসারে বাবার সামান্য আয়ে কোনরকমে টেনেটুনে চলে যাচ্ছিল একবেলা ভরপেট খাওয়া। তাই বাবা-মায়ের মুখে হাসি ফোটাতে মাত্র ১৮ বছর বয়সে ভিন রাজ্যে পাড়ি দিয়েছিল পূর্ব মেদিনীপুরের মঙ্গল হাইত। কিন্তু সেই যাওয়ায় কাল হলো তার। কাজে মন বসেনি বলে ফিরে আসার ট্রেন ধরেছিল সে। কিন্তু এর মধ্যেই দেশে ‘জনতা কার্ফু’। এরপরেই শুরু হয়ে যায় লকডাউন। ফলে আর ঘরে ফেরা হয়নি। করোনা আতঙ্ক, জনতা কার্ফু আর লকডাউনের মাঝে আজ দু’মাস পেরিয়ে হারিয়ে গেল এই ‘আঠারো বছর’। পরিবারের অভিযোগ, স্থানীয় থানা এই সংক্রান্ত নিখোঁজ ডায়রি নিতে অস্বীকার করেছে।

জানা গেছে, প্রায় দু’মাস আগে বাড়ি থেকে তামিলনাড়ুর চেন্নাইয়ে গিয়ে লেবার কন্সট্রাকশনের যোগ দেয় পূর্ব মেদিনীপুরের চন্ডীপুর থানা এলাকার কুলবাড়ী গ্রামের মঙ্গল। কাজ ভালো না লাগায় ফেরার ট্রেন ধরে সে। রাজু নামে এক বন্ধুর সঙ্গে হাওড়া পর্যন্ত আসে। সেখান থেকেই আলাদা হয়ে যায় দু’জনে। এর মধ্যেই লকডাউন জারি হয়। ফলে বাড়ি ফিরতে পারেনি ওই কিশোর। ওর কাছে ফোন না থাকায় যোগাযোগ করতে পারেনি বাড়ির লোকও।

ছেলে দু’মাস বাড়ি না ফেরায় চন্ডীপুর থানায় নিখোঁজ ডায়রি করতে গেলে ওই কিশোরের বাবা বাবলু হাইতকে পুলিশ ফেরত পাঠিয়ে দেয়। দ্বিতীয় বার অভিযোগ জানাতে গেলে হাওড়া জিআরপি-তে অভিযোগ জানানোর পরামর্শ দেয় পুলিশ, এমনই অভিযোগ করেছেন বাবলু বাবু।

Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Close