জেলা

ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের ওটি থেকে পালানোর চেষ্টা রুগির, উদ্ধার করতে হিমসিম দমকল বাহিনীর

ঝাড়গ্রাম : ওটি থেকে পালিয়ে হাসপাতালের পাঁচতলা বিল্ডিং থেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাইপলাইন দিয়ে ঝুলে নিচে নামার চেষ্টা রোগীর। নিচে নামতে গিয়ে ঝুলে থাকে রোগী। সেই রোগীকে দড়ি দিয়ে বেঁধে নিচে নামালো দমকল বাহিনী। সোমবার এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকলো ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে ওই রোগীর নাম সুদর্শন দণ্ডপাট। তার ডান হাতে ফ্রেকচার ছিল। তাই হসপিটালে ভর্তি ছিল সে। এদিন তার ডান হাতের প্লাস্টার করার জন্য সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের পাঁচ তলার ওটিতে নিয়ে যাওয়া হয়। ফাঁক বুঝে ওটি থেকে বেরিয়ে হাসপাতালের ছাদে উঠে যায়। সেখান থেকেই নিচে নামার জন্য হসপিটালের পাইপলাইনের গার্ড দেওয়া কাঠের পাটা ধরে নীচে নামার চেষ্টা করে সে।নিচে নামার সময় হসপিটালের নিরাপত্তারক্ষীদের চোখ পড়ে যায়। নিরাপত্তারক্ষীরা তড়িঘড়ি গিয়ে তাকে আটকান। কিন্তু ততক্ষণে সে অনেকটাই নিচে নেমে যায়।

খবর যায় দমকল বাহিনীর কাছে। তার পর ঘটনাস্থলে দমকল বিভাগের কর্মীরা এসে তাকে দড়ি দিয়ে বেঁধে নিচে নামায়। কেন বা কি কারণে ওই রোগী এই ঘটনা ঘটালে তা জানা যায়নি। যদিও রোগীর পরিবারের দাবি সুদর্শন মানসিকভাবে সুস্থ এবং স্বাভাবিক ব্যক্তি। 

সুদর্শন দণ্ডপাট এর বাড়ি জামবনি ব্লকের চিল্কিগড় এলাকায়। কোনো কারণবশত ডানহাতে ফ্রেকচার হওয়ায় সুদর্শন ভর্তি হয় ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। এদিন তার ডানহাতে প্লাস্টারের জন্য ওটি তে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।সেখান থেকেই সুযোগ বুঝে পালিয়ে যায় সে। এই ঘটনার পরেই ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিরাপত্তারক্ষীদের আর ভালো ভাবে নিরাপত্তা দেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, এদিন ওই ব্যক্তিকে দমকল বাহিনী নামানোর পর পুনরায় ওটি তে নিয়ে গিয়ে তাকে প্লাস্টার করার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। 

[qws]Tags:ঝাড়গ্রাম, সুপার স্পেশালিটি হসপিটাল

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel