জেলা

ঝাড়গ্রামে বহুতলের ছাদ থেকে পড়ে কিশোরের রহস্য জনক মৃত্যু

ফের মৃত্যু কিশোরের। এবারের বহুতলের ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হল এক কিশোরের। আর সেই মৃত্যু নিয়েই ক্রমশঃ রহস্যময় দানা বাঁধছে মানুষের মনে। বুধবার গভীর রাতে ঝাড়গ্রাম শহরের রঘুনাথপুর এলাকার একটি বহুতল আবাসন এলাকার ঘটনা। মৃত কিশোরের নাম সৈকত দে, বয়স ১৮।

সেই শহরের কানাগলি সুপার মার্কেটে মৃত কিশোরের বাবার একটি মোবাইল ফোনের দোকান আছে। সৈকত মেদিনীপুরে একটি স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিল সৈকত। বাঁকুড়ায় কিছুদিন যাবত চিকিৎসাও করানো হয় সৈকতের। বুধবার বিরিয়ানি খেতে যাবে বলে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল সৈকত। কিন্তু রাতে আর বাড়ি ফেরেনি সে। কোনোরকম যোগাযোগ করতে পারেনি বাড়ির লোক তার সাথে।

তবে খবর সূত্রে জানা যায়, সৈকতের আবাসনের ওয়াচ ম্যান রাতে সোহমকে বহুতলে ফিরে আসতে দেখেসাজন। তিনি মনে করেছিলেন যে সোহম বাড়ি ফিরছে। কিন্তু সোহম যে সোজা পাঁচ তলার ছাদে উঠে পড়ে তা কারোর নজরে সেভাবে পড়েনি। গভীর রাত বারোটা নাগাদ সেই আবাসনের পাঁচতলার উপর থেকে সৈকত নীচে পড়ে যায়। একটা শব্দ পায় আশেপাশের লোকেরা। সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসে স্থানীয়রা। কিন্তু এসে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে সৈকত। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সৈকতকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আশা রাখছে খুব শিগগিরই এই ঘটনার মূল কেন্দ্রে পৌঁছতে পারবে প্রশাসন।

Tags:রঘুনাথপুর, সৈকত দে,ঝাড়গ্রাম


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close