জেলা

পরিবর্তনের আঁতুরঘর নন্দীগ্রামে অঞ্চল সভাপতি, পঞ্চায়েত প্রধান সহ ২০০ জনকে শোকজ তৃণমূলের

পূর্ব মেদিনীপুর: পরিবর্তনের আঁতুরঘর হিসেবে পরিচিত নন্দীগ্রামে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতৃত্ব। করোনা আবহে আম্ফান ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ত্রাণ ও রেশন দ্রব্য বন্টন নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগে বারবার উত্তপ্ত হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের এই এলাকা। রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী শুভেন্দু খাসতালুকে দলীয় কর্মীদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় অস্বস্তিতে তৃণমূল নেতৃত্ব। তাই শেষ পর্যন্ত ২০০ জন কর্মীকে শোকজ করা হয়েছে বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

জানা গেছে, করোনা ও আম্ফান দুর্গত এলাকায় ত্রাণ বন্টন নিয়ে স্বজনপোষণ ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে। নন্দীগ্রাম বিধানসভা এলাকার এই ঘটনায় বারবার বিক্ষোভ দেখায় সাধারণ মানুষ। ফলে, কিছুটা বাধ্য হয়ে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেন শীর্ষ নেতৃত্ব। একসঙ্গে ২০০ জন দলীয় নেতাকে শোকজ করা হয়। এর মধ্যে অঞ্চল সভাপতি থেকে বুথ সভাপতি সহ নীচু স্তরের নেতাকর্মী।

শুধু তাই নয়, বেশ কয়েকজন পঞ্চায়েত প্রধানকেই শোকজ করা হয় এদিন। এদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ত্রাণ নিয়ে স্বজনপোষণ ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে স্থানীয় বিধায়ক তথা পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে, তৃণমূলের জেলা সভাপতি শিশির অধিকারী ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি ও স্বজনপোষণের অভিযোগ স্বীকার করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার ঈঙ্গিত দিয়েছেন।

[qws]Tags:নন্দীগ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel