জেলারাজ্যশিক্ষা ও স্বাস্থ্য

এবছরের মাধ্যমিক ফলে জেলার জয়জয়কার, পিছিয়ে পড়লো কলকাতা

GNE NEWS DESK: প্রকাশিত হল এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল। এখন ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে ফল ঘোষণা করলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের (West Bengal Board of Secondary Education বা WBBSE) সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়।

আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করছেন পর্ষদের সভাপতি। ১৩৯ দিনের মাথায় ফল প্রকাশিত হচ্ছে। সবমিলিয়ে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১০,০৩,৬৬৬। ছাত্র সংখ্য়া ৪,৩৭,৯৯৮ জন। ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের সংখ্যা বেশি ১২.৭২ শতাংশ। ১,২৭,৬৭০ জন বেশি ছাত্রী। সাফল্যের হারে ছাত্রীরা সামান্য পিছিয়ে থাকলেও পর্ষদের সভাপতির বিশ্বাস, ছাত্রদের ধরে ফেলবে ছাত্রী।

পাশের নিরিখে এগিয়ে পূর্ব মেদিনীপুর (৯৬.৫৯ শতাংশ)। দ্বিতীয় স্থানে পশ্চিম মেদিনীপুর (৯২.১৬ শতাংশ)। তৃতীয় স্থানে কলকাতা (৯১.০৭ শতাংশ)। তারপর আছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং উত্তর ২৪ পরগনা। ৪৯ টি ক্যাম্প অফিসের মাধ্যমে মার্কশিট এবং সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। আগামী ২২ জুলাই সকাল ১০ টা থেকে বিতরণ করা হবে। সব ক্যাম্প অফিস এবং স্কুল স্যানিটাইজেশনের জন্য এক সপ্তাহ সময় নেওয়া হচ্ছে। সুরক্ষা বিধি নেওয়ার আর্জি জানান পর্ষদের সভাপতি। সফল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৮,৪৩,৩০৫। কোনও রেজাল্ট বাকি নেই। ৫৮ জনের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।

পাশের হার : ৮৬.৩৪ শতাংশ। ছাত্রদের পাশের হার ৮৯.৮৭ শতাংশ। ছাত্রীদের পাশের হার ৮৩.৪৭ শতাংশ।
প্রথম স্থান : একজন হয়েছেন। ৬৯৪ পেয়েছেন। পূর্ব বর্ধমানের মেমারি বিদ্যাসাগর মেমোরিয়ালের অরিত্র পাল।দ্বিতীয় স্থান : দু’জন। বাঁকুড়ার ওন্দা হাইস্কুলের সায়ন্তন গড়াই এবং কাটোয়া কাশীরাম দাস স্কুলের অভীক দাস। প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৩।তৃতীয় স্থান : তিনজন। বাঁকুড়ার কেন্দুয়াডিহি হাইস্কুলের সৌম্য পাঠক, দেবস্মিতা পাঠক এবং অরিত্র মাইতি। প্রাপ্ত নম্বর ৬৯০। মেয়েদের মধ্যে প্রথম দেবস্মিতা পাঠক। তিনি পূর্ব মেদিনীপুুরের ভবানীচক হাইস্কুলের পড়ুয়ার তিনি।চতুর্থ স্থান : বীরভূম জেলা স্কুলের অগ্নিভ সাহা। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৯।পঞ্চম স্থান : প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৮।ষষ্ঠ স্থানে ১২ জন। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৭।সপ্তম স্থান : ১৭ জন। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৬। অষ্টম স্থান : প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৫। নবম স্থান : প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৪। দশম স্থান : প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৩। প্রথম দশে রয়েছেন ৮৪ জন। মেধাতলিকায় একজনও নেই কলকাতার।

চলতি বছর ১৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছিল মাধ্যমিক পরীক্ষা (WBBSE Madhyamik Result 2020)। চলেছিল ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। গত বছর মাধ্যমিকে (WBBSE Class 10th Result 2019) সার্বিক পাশের হার ছিল ৮৬.০৪ শতাংশ। পাশের হারে এগিয়ে ছিল পূর্ব মেদিনীপুর (৯৬.০১ শতাংশ)। তারপরেই ছিল কলকাতা (৯২.১৩ শতাংশ), পশ্চিম মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনা ইত্যাদি জেলা। প্রথম হয়েছিলেন পূর্ব মেদিনীপুরের মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের সৌগত দাস। তাঁর প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৬৯৪। প্রথম দশে ছিলেন ৫১ জন।

Tags: মাধ্যমিক রেজাল্ট, কলকাতাকে পিছনে ফেললো অন্যান্য জেলা, জয় জয়কার জেলার।


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close