জঙ্গলমহলের দায়িত্ব ছেড়ে ফিরে যাচ্ছেন মাওবাদী দমনে দক্ষ নাগাবাহিনী, দায়িত্বের ভার জেলা পুলিশের ওপর

Nagabahini, who is skilled in suppressing Maoists, is leaving the responsibility of Jangalmahal and the responsibility is on the district police.

GNE NEWS DESK: সম্প্রতি ভিডিও কনফারেন্সে বাংলা-ঝাড়খণ্ড ইন্টার স্টেট কো-অর্ডিনেশন মিটিংয়ে ঝাড়খণ্ড পুলিশ জানিয়েছেন যে, মাওবাদী নেতা আকাশ প্রায় আড়াই বছর পর সীমানা ঘেঁষা ঝাড়খণ্ডে স্কোয়াড নিয়ে ঘুরছে। আর এই তথ্য জানার পর থেকেই নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য পুলিশ। তবে চিন্তার ব্যাপার এই যে, সোমবার জঙ্গলমহল অন্তর্গত জেলা পুরুলিয়ার যে মাওবাদী দমনকারী দক্ষ নাগাবাহিনী প্রেরণ করা হয়েছিল সেই সেনাবাহিনী ফিরে যাচ্ছে প্রায় এক দশক বাদে। এদিন ইন্ডিয়ান রিজার্ভ ব্যাটেলিয়নের ১৪ নম্বর বাহিনীর ছ’কোম্পানি নাগাল্যান্ডে সাম্প্রতিক অস্থিরতার কারণে ডিমাপুর ফিরে যাচ্ছেন বিশেষ ট্রেনে করে। তবে তাঁদের বদলে শিবির গুলোর জন্য কোনোরকম কেন্দ্রীয় বাহিনী সিআরপিএফ এখনো মোতায়েন করা হয়ে ওঠেনি। তাই সমস্ত ভার এসে পড়েছে রাজ্য পুলিশের স্ট্র্যাকো ও জুনিয়র কনস্টেবলের অ্যাসল্ট বাহিনী।

কিছুদিন যাবত জঙ্গলমহলে নতুন করে মাওবাদী আতঙ্ক গ্রাস করেছে সকলের মধ্যে। এমতাবস্থায় রাজ্য পুলিশের উপরও চাপ ক্রমশঃ বেড়েই চলেছে। এবিষয়ে সিআরপিএফের আইজি প্রদীপ কুমার সিং জানান, “আপাতত রাজ্য পুলিশ নাগা বাহিনীর ওই ক্যাম্পগুলির দায়িত্ব নেবে। তারপর ধাপে ধাপে সেখানে সিআরপিএফ পৌঁছবে। প্রথম ধাপে দু’কোম্পানি, পরের ধাপে আরও দু’কোম্পানি বাহিনী ওই শিবিরগুলির দায়িত্ব নেবে বলে সম্প্রতি দুর্গাপুরের বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ইতিমধ্যে বাংলা- ঝাড়খণ্ড সীমান্তে আমাদের সেনাবাহিনী মোতায়েন করা সম্ভব হয়েছে।”

এদিকে এত বছরের দায়িত্ব থেকে ছেড়ে যেতে,কর্তব্য থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে জওয়ানরাও কিছুটা বিষণ্নতা বোধে ভুগছে। এতদিন যাবৎ কর্তব্যরত অবস্থায় পুরুলিয়ার বসবাস করায় পুরুলিয়ার মানুষদের সাথে তাঁদের এক বন্ধুত্ব পূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই নাগা ব্যাটেলিয়নের সিও মন্ডকো ইয়াচুং বলেন, “পুরুলিয়ায় ডিউটি করার অভিজ্ঞতা ভুলতে পারব না। ঘরে ফিরলেও পুরুলিয়ার জন্য মনখারাপ লাগছে।”
[qws]Tags:জঙ্গলমহলের দায়িত্ব ছেড়ে ফিরে যাচ্ছেন মাওবাদী দমনে দক্ষ নাগাবাহিনী, দায়িত্বের ভার জেলা পুলিশের ওপর

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel