এনআইএ-এর জেরা তৃণমূলের ধরমপুর অঞ্চল সভাপতি দিলীপ মাহাতো

NIA interrogation TMC Dharampur region president Dilip Mahato

লালগড়: টানা ৪ ঘন্টা ধরে এনআইএ-এর জেরার মুখে পড়লেন তৃণমূলের(TMC) ধরমপুর অঞ্চল সভাপতি(Dharampur region president) দিলীপ মাহাতো। রবিবার দুপুরে ১২ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত এনআইএ(NIA)-এর টিম শালবনি ২০৭ নম্বর ব্যাটালিয়নের কোবরা ক্যাম্পে তাকে প্রবিন মাহাতর খুনের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করে। তার সাথে সাথে এনআইএ এসসি-এসটি সেলের সভাপতি সুন্দর মান্ডিকেও জেরা করে।

এদিন দিলীপ মাহাতো(Dilip Mahato) জানান, “এনআইএ প্রবীণ মাহাতর খুনের ঘটনার কথা জানতে চেয়েছিলেন। তবে আমি জানিয়ে দিয়েছি যে আমি যুক্ত ছিলাম না। তখন আমি বাম বিরোধী ছিলাম বলে বাম নেতার খুনের ঘটনায় আমাকে ফাঁসানো হয়েছিল। এখন আমি তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি বলে আমার পেছনে ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি। এছাড়াও আমাকে জিজ্ঞেস করা হয় আমি বাকি অভিযুক্তদের চিনি কিনা। আমি বলেছিলাম সবাইকে তো চিনি না তবে কিছু জনকে চিনি।”

প্রবীণ মাহাতর খুনের ঘটনায় ২০১০ সালে দিলীপ মাহাতো গ্রেপ্তার হন। আর ২০১১ এর ভোটের আগে তার জামিনে মুক্ত হয়। জামিন হয়ে ফিরে এলে তাকে তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতির পদ দেওয়া হয়। তবে পুরো বিষয়টিতে দিলীপ মাহাতর আইনজীবি কৌশিক সিনহা জানান, ” ইতিমধ্যেই দিলীপ বাবুর ৩৫ টি মামলার মধ্যে ১২ টি মামলায় আদালত থেকে বেকসুর খালাস পেয়েছে। সেই সময় বাম বিরোধী ছিলেন বলে তাকে নানান কর্মকান্ড তে ফাঁসিয়ে অভিযুক্তদের নামের তালিকায় আনা হয়েছিল।

[qws]Tags: NIA, investigation, TMC

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel