দুষ্কৃতীদের গুলিতে আহত বিজেপির মহিলা কর্মী, ক্ষোভে ফেটে পড়ল গেরুয়া শিবির!

BJP women workers injured in the shooting of miscreants, Gerua camp erupted in anger!

GNE NEWS DESK: কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে লড়াই করছেন গুলিবিদ্ধ এক মহিলা। মহিলার নাম রাধারানী নস্কর (Radha Rani naskar) স্থানীয় দুষ্কৃতীরা তাকে গানপয়েন্টে রেখে মাথায় গুলি চালায়। প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলেও পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কলকাতার ট্রান্সফার করা হয়। এই মহিলা এবং তারাই বিজেপি কর্মী হিসেবে পরিচিত। মহিলার মাথার বাঁদিকে গুলি লেগেছে। তার অবস্থা এখনও সংকটজনক। তাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন বিজেপি মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল (agnimitra Pal)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রাধারানী এবং তার স্বামী পাড়ায় বিজেপি কর্মী হয়ে পরিচিত হওয়ায় শাসকদল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের তার বাড়িতে হামলা চালায়। প্রথমে বাড়িতে ঢুকে তারা রাধারানীর স্বামীর খোঁজ করেন। কিন্তু তাকে না পেয়ে পরে রাধারাণী কে মারধর করতে শুরু করেন। আত্মরক্ষার্থে তিনি দুষ্কৃতীদের দিকে ঝাঁটা ছুড়ে মারলে পরে রাধারাণীকে তারা গানপয়েন্টে রেখে গুলি চালায়। মাথার দিকে গুলি লাগে এবং রক্তাক্ত অবস্থায় তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এরপরই দুষ্কৃতীরা চম্পট দেয়।

এ ঘটনায় ক্রোধের আগুনে ফেটে পড়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি অত্যন্ত চাঁছাছোলা ভাষায় তৃণমূলকে আক্রমণ করেছেন। তার সঙ্গে গলা মিলিয়েছেন বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় ও। দিলীপ বাবু বলেন “পশ্চিমবঙ্গ সরকার হিংসাকেই তাদের নীতি বানিয়ে নিয়েছে… মমতা ব্যানার্জি, আপনার আর মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসার কোনও অধিকার নেই।”

দিলীপ ঘোষ আরো বলেন, “৪ তারিখ সারা রাজ্যে বিজেপি গণতন্ত্র বাঁচানোর লক্ষ্যে ধরনা কর্মসূচি পালন করে। আর তারপর থেকেই ডায়মন্ডহারবার এলাকায় তৃণমূল নেতা জাহাঙ্গির খানের নেতৃত্বে জায়গায় জায়গায় হামলা করা হচ্ছে। বোমাবাজি চলছে। উত্তর ২৪ পরগনার সন্দেশখালিতেও তৃণমূল নেতা শাহাজাহানের নেতৃত্বে দলীয় কার্যালয় ভেঙে দেওয়া হয়েছে। খড়দায় বিজেপি কর্মীকে গুলি করা হয়েছে। কালনায় বিজেপি কর্মী খুন হন। প্রতিদিন এরাজ্যের কোনও না কোনও জায়গায় বিজেপি কর্মীকে হয় শারীরিকভাবে নিগ্রহ করা হচ্ছে, নয়তো খুন করা হচ্ছে।” তিনি আরো জানান পুলিশের সামনেই সবকিছু ঘটছে, অথচ পুলিশ নির্বিকার তার কারণ তারা শাসকদলের ভয়ে চুপ করে আছেন। অন্যদিকে বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় টুইটারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন। তিনি লেখেন এই ঘটনা পশ্চিমবঙ্গের জন্য খুবই লজ্জা কর একটি ঘটনা। এই রাজ্য এখন এমন হয়ে গেছে যেখানে মহিলাদেরও নৃশংস ভাবে খুন করা হচ্ছে । মমতা ব্যানার্জি মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসার নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন।
[qws]Tags: আপডেট খবর,বাংলা খবর,করোনা আপডেট, আজকের রাশিফল, bengalinews, ভারতের খবর, আজকের খবর, আবহাওয়ার খবর,ঝাড়গ্রাম, উপকারিতা, দেশের খবর, আজকের নিউজ,

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel