প্রথম পাতা করোনা আপডেট আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
জেলা

কুদরায় ছয় শতাব্দী ধরে পূজিত হয়ে আসছেন দেবী দুর্গা


রঞ্জিত ঘোষ,বাঁকুড়া, 23আক্টোবর:
ছয় শতাব্দী ধরে পূজিত হয়ে আসছেন বাঁকুড়ার বন আশুরিয়ার কুদরা গ্রামের বন্দ্যোপাধ্যায় বাড়ির দেবী দুর্গা ।যার আনাচে কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ইতিহাস । এবছর তাদের পুজো ৬৩১বছরে পদার্পণ করল ।

পরাধীন ভারতে গঙ্গাজলঘাঁটির এই কুদরা গ্রাম ছিল সাধরণ মানুষের এক আশ্রয়স্থল।মানুষের সুখে দুঃখে প্রধান খুটি হয়ে দাড়াতেন বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের জমিদারেরা।আজ থেকে ৬৩১বছর আগে গ্রামকে কেন্দ্র করে মানুষের মঙ্গলকামনার্থে শুরু হয় দুর্গা পুজো । তার পর অনেকটা পথ পাড়ি দিয়ে আজ পৌঁছেছে একবিংশ শতাব্দীতে। এখন পুজো পরিচালনার দ্বায়িত্ব সামলান বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের রামরঞ্জন,ভোলানাথ কালীপদ বন্দ্যোপাধ্যায়েরা। এখনও সেই পুরাতন রীতি মেনেই দেবীদুর্গার আরাধনা, পরিবর্তন হয়েছে শুধু প্রতীমার।

আগে মৃত শিল্পী দিয়ে মাটির প্রতীমা তৈরি করা হতো কিন্ত এখন তার বদলে দুর্গা,লক্ষী, গণেশসহ পুরোটি পাথরের তৈরী । এই রদবদল ২০১৯থেকে ।অন্যান্য দুর্গাপুজো গুলির মতোই মহা সপ্তমীর দিন নিকটস্থ নদী থেকে কলাবউ বা নবপত্রিকা স্নান করিয়ে আনার পর পুজো আরম্ভ হয় । পুজোর পর চলে প্রসাদ বিতরণের পর্ব ,তার পর বিভিন্ন শিক্ষামূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠান । কর্ম সূত্রে বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের সদস্যরা ভিন দেশে বা রাজ্যের ভিন্ন প্রান্তে থাকলেও দুর্গাপূজোর অমোঘ টানে ছুটে আসেন জন্ম ভিটে কুতরা গ্রামে । সকলে মিলে সামিল হন পুজোয়। আট থেকে আশি সকলেই ভাগ করে নেয় পুজোর আনন্দ ।

GNE

Related Articles

x