প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
জেলা

নন্দীগ্রামে বয়ালের বুথে ধুন্ধুমার, অশান্ত বুথে দুই ঘন্টা আটক মমতা, বেরিয়ে বললেন ‘চিন্তিত গণতন্ত্র নিয়ে’

GNE NEWS DESK: প্রায় দু’ঘণ্টা পর নন্দীগ্রামের বয়ালের বুথে আটক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় বাহিনী, রাজ্য পুলিশ এবং কমিশনের আধিকারিকরা কড়া নিরাপত্তায় বের হলেন বুথ থেকে। বুথ থেকে বেরিয়ে তিনি বলেন, “নন্দীগ্রাম নিয়ে চিন্তিত নই আমি। গণতন্ত্র নিয়ে চিন্তিত। এখানে ভোটে চিটিংবাজি হয়েছে।”

দ্বিতীয় দফায় ভোট চলাকালীন ছাপ্পাভোটের অভিযোগে সকাল থেকে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নন্দীগ্রামের বয়াল। পরিস্থিতি তদারকি করতে দুপুরে বয়াল মক্তব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৭ নম্বর বুথের উদ্দেশে রওনা দেন মমতা। বয়ালে পৌঁছে হুইলচেয়ারে গ্রামের ২ কিমি ভিতরে বুথে যাওয়ার পথে মমতার মুখোমুখি হয়ে তৃণমূল সমর্থক অভিযোগ করেন, বুথের দখল নিয়েছে বিজেপি এবং অবাধে ছাপ্পাভোট করে যাচ্ছে তারা। এমনকি তৃণমূলের এজেন্টকে পর্যন্ত ঢুকতে দেওয়া হয়নি। কেন্দ্রীয় বাহিনী কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। মমতা বুথে পৌঁছালে বিজেপি সমর্থকরা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দেন। তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকরা হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন।

রাজ্য পুলিশ এবং র‌্যাফ পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেও বাইরের পরিস্থিতি শান্ত না হওয়ায় বুথের ভিতরই আটকে পড়েন মমতা। যথেষ্ট সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন না থাকায় পুলিশের তরফে মানবশৃঙ্খল গড়ে বিক্ষোভকারীদের আটকানোর চেষ্টা করা হয়। বুথে বসেই সংবাদমাধ্যমে মমতা অভিযোগ করেন, বয়ালের ওই বুথে ৮০ শতাংশ ছাপ্পাভোট হয়েছে। বিহার ও উত্তরপ্রদেশের গুন্ডারা এসে ঝামেলা পাকাচ্ছে বলেও জানান তিনি। বয়ালের বুথে বসেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে ফোন করে পরিস্থিতি জানান তিনি।

ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিশাল কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে যান নন্দীগ্রাম থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত আইপিএস অফিসার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে তৃণমূল নেত্রীকে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়। উপস্থিত নির্বাচন কমিশনের আধিকারিক ও নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকের কাছে তৃণমূলের এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয়নি ও ভোটদানে বাধা দিতে হওয়া হয়েছে সেই মর্মে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একই রকমের খবর