জাতীয়

ছল চাতুরী শেষ,হাতে সময় সাত দিন!নির্ভয়া কান্ডের চার শয়তানকে একসঙ্গে ফাঁসি

নির্ভয়া ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার আসামিকে সব ধরনের আইনি প্রচেষ্টা শেষ করতে এক সপ্তাহের সময় বেঁধে দিয়েছেন দেশটির আদালত। এই এক সপ্তাহের মধ্যে আসামিদের সব আইনি প্রক্রিয়া শেষ হলে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের প্রক্রিয়া শুরু করবে আদালত।

নির্ভয়া ধর্ষণকাণ্ডের আসামিরা ফাঁসি কার্যকর বিলম্বিত করতে ইতোমধ্যে দু’বার আবেদন করে সফলও হয়েছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট রামনাথ কোবিন্দের কাছে দুই আসামি প্রাণভিক্ষার আবেদন করলে তা নাকচ হয়ে যায়। তবে এই আবেদনের কারণে তাদের ফাঁসি কার্যকরের তারিখ দুবার পিছিয়ে যায়।

আসামিদের এমন কৌশলের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার নয়াদিল্লির হাইকোর্ট নির্দেশ জারি করে বলেছেন, সাতদিনের মধ্যে আসামিদের সব আইনিপ্রচেষ্টা শেষ করতে হবে। একই সঙ্গে দেশটির নিম্ন আদালতে ফাঁসি কার্যকর অনির্ধারিত সময়ের জন্য স্থগিতাদেশে চেয়ে করা কেন্দ্রীয় সরকারের এক আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

আলাদা আলাদা দিনে ফাঁসি কার্যকর করতে কেন্দ্রের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে আদালত বলেছেন, সব আসামির মৃত্যুদণ্ড একই দিনে কার্যকর হবে।

আদালতের বিচারক সুরেশ কাইট বলেছেন, দিল্লি কারাগারের বিধি অনুযায়ী যদি কোনও আসামির ক্ষমা প্রার্থনার আবেদনের জবাব ঝুলে থাকে, তাহলে অন্য আসামিদের ফাঁসি কার্যকর করা সম্ভব নয়। যেহেতু সুপ্রিম কোর্ট ৪ আসামির একই সাজা দিয়ে মৃত্যুদণ্ডাদেশ ঘোষণা করেছে সেহেতু সব আসামির মৃত্যুদণ্ড একসঙ্গে কার্যকর হওয়া উচিত,পৃথকভাবে নয়।

আদালতের এমন নির্দেশের পর নির্ভয়ার মা আশা দেবী সাংবাদিকদের বলেন, আমি খুশি যে, হাইকোর্ট আইনি প্রচেষ্টা শেষ করার জন্য আসামিদের নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে করেছে। দোষীরা ইচ্ছাকৃতভাবেই বিলম্ব করছিল, এই রায়ের ফলে এখন এক সপ্তাহের মধ্যে তাদের সব চেষ্টা সম্পন্ন করতে হবে।


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close