জাতীয়

রাজ্যে মদ দোকান বন্ধের নির্দেশ দিল হাইকোর্ট

তামিলনাড়ু:নন-কনটেন্টমেন্ট জোনে মদ দোকান খোলার অনুমতি দেওয়ার দু’দিন পরই মাদ্রাজ হাইকোর্ট তামিলনাড়ু স্টেট মার্কেটিং কর্পোরেশনকে (ট্যাসম্যাক) রাজ্যজুড়ে দোকান বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে। আদালত উল্লেখ করেছেন যে, কোভিড ১৯-এর সংক্রমণ রোধে শারীরিক দূরত্বের নিয়মগুলি মানা হয়নি। ট্যাসম্যাকগুলি পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্তে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা। এই সিদ্ধান্তের নিন্দা করে তারা সতর্ক করে দিয়েছিলেন যে, এর ফলে ভিড় বাড়বে।

শুক্রবার আদালত কেবলমাত্র অনলাইন অর্ডার ও হোম ডেলিভারির মাধ্যমে মদ বিক্রির অনুমতি দিয়েছে। প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ও অভিনেতা কামাল হাসানের মাক্কাল নিধি মাইয়াম পার্টির নেতা এজি মৌর্যের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত এই আদেশ দেন। বৃহস্পতিবার অভিনেতা-রাজনীতিবিদ কমল হাসান একটি চিঠি লিখে টাসম্যাক পুনরায় চালু করার জন্য এআইএডিএমকে সরকারকে তীব্র সমালোচনা করে এই পদক্ষেপকে ‘হেয়ারব্রেইনড’ এবং ‘গণহত্যার সামিল’ বলে উল্লেখ করেন। আদালতের এই ঘোষণার পরে কামাল হাসান টুইট করেছিলেন, ‘এই রায় আবার প্রমাণ করেছে যে, আদালতের বিশ্বাস ও প্রতিশ্রুতি সর্বদা জিতবে। আমরা জনগণের পক্ষে রায় পেয়েছি। এটি কেবল এমএনএমের পক্ষে জয় নয়।’

বুধবার বিচারপতি ভিনিত কোঠারি ও বিচারপতি পুষ্প সত্যনারায়ণের একটি ডিভিশন বেঞ্চ ছয় সপ্তাহের লকডাউনের পরে টাসম্যাক স্টোর পুনরায় চালু করার অনুমতি দিয়েছিল। আদালত ব্যক্তি প্রতি এক বোতল (৭৫০ মিলিলিটার) মদ কেনার অনুমতি দিয়েছিল। পাশাপাশি এক ব্যক্তি তিন দিনের একবার মদ ক্রয় করতে পারবে বলে জানিয়েছিল।

আদালত সতর্ক করে দিয়েছিল, লকডাউন সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন না করলে এবং সামাজিক দূরত্বের নিয়মকানুন মেনে না চললে তারা আবারও দোকান বন্ধের নির্দেশ দেবে। চেন্নাই এবং পার্শ্ববর্তী জেলাগুলিতে মদের দোকানগুলি আবার খুলতে দেওয়া হয়নি। প্রথম দিনে, কয়েকশ জন রাজ্যের এক একটি ট্যাসম্যাক স্টোরের সামনে ভিড় করেছিল বলে জানা গেছে। সূত্রের খবর, ১৭০ কোটি টাকার ২০ লক্ষ লিটার মদ বিক্রি হয়েছিল প্রথম দিন।


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close