জাতীয়

সরকারের বিরুদ্ধে সরব হওয়ায় জামা খুলে হাত বেঁধে বেদম মার চিকিৎসকে

সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন এক চিকিৎসক। তার মাসুল যে এভাবে দিতে হবে তা ভাবতেও পারেনি। শরীরের উর্ধাঙ্গে নেই কোন পোষাক! পিছন দিক থেকে বাঁধা হাত, সেই অবস্থায় রাস্তায় ফেলে বেদম পেটাচ্ছে এক দল পুলিশ। এমনেই অমানবিক নির্যাতনের শিকার হলেন অন্ধ্রপ্রদেশের এক চিকিৎসক।

জানা গেছে করোনা চিকিৎসার সাথে যুক্ত স্বাস্থ্য কর্মীদের পিপিই না থাকার অভিযোগ করেছিলেন। তিনি দাবি করেছিলেন করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার জন্য পিপিই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জিনিষ। সেটা না পেলে রোগী সংস্পর্শে এলে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একদল পুলিশ উক্ত চিকিৎসককে পিছন দিক হাত বেঁধে উপরের পোশাক খুলে দিয়ে অমানবিক অত্যাচার করছে। দেখা যাচ্ছে পিছন থেকে হাত বাঁধা অবস্থায় রাস্তায় ফেলে বেদম মার দিচ্ছে। এই ভিডিও সামনে আসার পরেই অন্ধ্রপ্রদেশ জুড়ে ক্ষোভ ছড়িয়েছে‌। বিরোধী দল গুলিও সরব হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী জগন্মোহন রেড্ডির বিরুদ্ধে।

ইনি হলেন ডাঃ সুধাকর রাও। ইনার অপরাধ একটাই বিগত 2 মাস আগেতিনি করোনা ভাইরাসের সতর্কতার জন্য N95 মাস্ক এবং PPE কিটেরঅভাব…

Posted by Ismail on Sunday, May 17, 2020

জানা গেছে উক্ত চিকিৎসকের নাম কে সুধাকর। তিনি বিশাখাপত্তনমের নরসিপত্তনম হাসপাতালের চিকিৎসক। সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় কে সুধাকরকে হাসপাতাল থেকে সাসপেন্ড করে। সূত্রের খবর কে সুধাকরকে ৮ এপ্রিল সাসপেন্ড করে। চিকিৎসককে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত কনস্টেবলকে সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে জানা গেছে।


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close