ভয়াবহ ঘটনা! নিজের মা বোন সহ ৮৪ জন মহিলাকে ধর্ষণ করে হত্যা করেছে এই সিরিয়াল কিলার!

Horrible thing! This serial killer has raped and killed 84 women including his mother and sister!

GNE NEWS DESK: সিরিয়াল কিলারের কথা আমরা অনেক সময় সিনেমায় বা বই এ পেয়ে থাকি। কিন্তু বাস্তবে যে এরকম ভয়ঙ্কর নৃশংস খুনী আছে তা স্বপ্নেও কেউ কল্পনা করতে পারেনি । এক দুজন নয়, ৮৪ জন ধর্ষণ করে নারীকে হত্যা করেছে সে এবং সবচেয়ে ভয়ানোক ব্যাপার হল সেই তালিকাতে রয়েছে তার নিজেরই মা ও বোন। কাউকে হাতুডি়র আঘাতে, কাউকে ছুরি দিয়ে। কাউকে আবার কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে। আবার কাউকে প্রাণে মেরেছেন শ্বাসরোধ করে। নৃশংস এই সিরিয়াল কিলারের নাম মিখাইল পোপকভ। 

 এই মিখাইল আবার রাশিয়ার সাবেক পুলিশ কর্মী। এনি ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী নারীদের ধর্ষণ করে হত্যা করতেন। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেই ভিডিওতে রয়েছে তার হাড়হিম করে দেওয়া স্বীকারোক্তি। কেন, কবে,

কীভাবে সেই নারীদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছেন তার বর্ণনা সে নিজেই দিয়েছে নির্লজ্জ ভাবে। হুহু করে এই ভিডিও ছাড়ার কিছুক্ষণ এর মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। ১৯৯২ থেকে ২০১০ পর্যন্ত ৮৪ জন নারীকে হত্যা করেছে মিখাইল। 

আপাতত রাশিয়ান পুলিশের হিসাব তাই বলছে। যদিও এই নৃশংস সিরিয়াল কিলার নিজে ৮১ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। মিখাইলের হত্যাকাণ্ডের তদন্তে নামা পুলিশ কর্মকর্তা এবচের্জেবস্কি সন্দেহ করছেন, এখনও পর্যন্ত মিখাইল অন্তত ২০০ জনকে হত্যা করেছে।

উল্লেখ্য, জেরায় মিখাইল নিজেই তার হত্যার কথা স্বীকার করে। তবে ঠিক কতজন নারীকে সে হত্যা করেছে তা স্বীকার করেনি। ২০১৫ সাল অব্দি সে ২২ জন নারীকে হত্যা করেছিল। কিন্তু পুলিশি হিসাব বলছে সে তারপরো ৫৯ জনকে হত্যা করে। কিন্তু অনেকের ধারণা এখানেই শেষ নয়। আরো অনেকেই আছেন এই তালিকায়। একজন মহিলা পুলিশকর্মী কেও হত্যা করেছিল সে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে তাহলে এই মিখাইল ই কি ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সিরিয়াল কিলার? অনেকেই একবাক্যে স্বীকার করছেন যে “হ্যাঁ”।
[qws]Tags:ভয়াবহ ঘটনা! নিজের মা বোন সহ ৮৪ জন মহিলাকে ধর্ষণ করে হত্যা করেছে এই সিরিয়াল কিলারের!

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel