লকডাউনে পিসির বাড়িতে আটকে পড়ায় পিসতুতো দাদার হাতে লাগাতার ধর্ষণের শিকার বোন

sister who was repeatedly raped by her brother

GNE NEWS DESK:ষোলো বছর বয়সী এক কিশোরী পিসির বাড়িতে গিয়েছিল লকডাউনের আগে। তারপর সেই কিশোরীকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে দিনের পর দিন তার পিসির ছেলে। যারফলে লাগাতার ধর্ষণে গর্ভবতী হয়ে পড়ে সেই কিশোরী। শারীরিক চিকিৎসার পর চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, কিশোরী বর্তমানে ১৮ সপ্তাহের গর্ভবতী। মহারাষ্ট্রের পুনেতে এই ন্যক্কারজনক ঘটনাটি ঘটে। কিশোরীর মা পুলিশের কাছে মামলা দায়ের করে ইতিমধ্যে বিচারের আশায় বসে রয়েছেন।

কিশোরীর বয়ান অনুযায়ী, তার দাদা তাকে ১৪ মার্চ প্রথম ধর্ষণ করে। সেই দিন তার স্ত্রী বাপের বাড়ি যাওয়ায় বাড়ি ফাঁকা ছিল। কিশোরীর মা জানায়, লক ডাউনের আগে বিশেষ প্রয়োজনে তার দাদা আর বৌদি ছাড়া বাকি সকলে গ্রামের বাড়ি যায়। কিন্তু লক ডাউন পরে যাওয়ায় তারা আর ফিরতে পারে না। সেইসময় কিশোরীর দশম শ্রেণীর পরীক্ষা চলছিল তাই সেও তাদের সাথে যেতে পারেনি। তাই সে দাদা বৌদির সাথে একাই ছিল।

কিশোরী তার মা কে বলে, মার্চের ১৪ তারিখ তার দাদা বৌদির মধ্যে ঝগড়া অশান্তি হওয়ায় বৌদি বাড়ি থেকে চলে যায়। আর তারপর তার দাদা সুযোগ পেয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এমনকি সেই ধর্ষণ ক্রমাগতভাবে চলতে থাকে যার দরুন কিশোরী আজ গর্ভবতী। কিশোরীর মা জানায়, বাড়ি ফিরতে তার আচরণে পরিবর্তন দেখে তার মা তাকে জিজ্ঞেস করায় কিশোরী সব খুলে তার মাকে জানায়। এবং কিশোরী মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ে।

তারপরেই কিশোরীর মা কিশোরীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে জানতে পারে তার মেয়ে ১৮ সপ্তাহের গর্ভবতী। আর সেই শুনেই তার মা পুলিশের দারস্থ হয়। বছর ৩৫ এর সেই পিসতুতো দাদার বিরুদ্ধে পকসো, ধর্ষণ-সহ সংশ্লিষ্ট একাধিক ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে আইনানুযায়ী। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।
[qws]Tags: মহারাষ্ট্র,পিসতুতো দাদার হাতে লাগাতার ধর্ষণের শিকার বোন

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel