আরেক প্রণববাবু

Another Pranab Babu

সুকুমার মাহাত: দেশের রাজনীতিতে প্রণব মুখোপাধ্যায় জাতীয় এবং অন্যতম প্রাচীন দল কংগ্রেসের ক্রাইসিস ম্যানেজার ছিলেন নাকি এমন শক্তিশালী রাজনীতিবিদ ছিলেন যিনি কংগ্রেস(Congress) থেকে শুরু করে ইউ পি এ সরকারের সেকেন্ড ম্যানের দায়িত্বে ছিলেন সে নিয়ে কোনও মাথা ব্যথা নেই সাগরদিঘির প্রত্যন্ত গ্রাম বারালার হোসেনপুরে র! প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এবং দেশের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মন্ত্রকের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রণব বাবু(Pranab Mukherjee) প্রয়াত হওয়ার পর বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন আলোচনা! কেউ বলছেন তিনি মুর্শিদাবাদ জেলার জন্য আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়, এম ডি আই ক্যাম্পাস, পিএফ এর আঞ্চলিক অফিস, আর্মি রিক্রুটমেন্ট সেন্টার, নবগ্রামে সেনা ছাউনি, জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণ থেকে শুরু করে কান্দি মাস্টার প্ল্যান এমনকি গঙ্গা-পদ্মা ভাঙ্গনের জন্য বিশেষ তহবিল বরাদ্দ করে মুর্শিদাবাদ জেলার উন্নয়নের জন্য একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে যা করেছেন তা অভাবনীয়! সমালোচকরা বলছেন তিনি অনেক কিছু করতে পারতেন যা করেন নি! আবার কেউ কেউ তার হয়ে ডিফেন্সিভ চালে বলছেন প্রণব বাবু জাতীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, তারমধ্যে প্রাদেশিক গোঁড়ামি ছিল না! সাগরদিঘি ব্লকের হোসেনপুর গ্রামের বাসিন্দারা কিন্তু সেই আলোচনায় যেতে নারাজ! তাদের বিশ্বাস, প্রণব মুখোপাধ্যায় জঙ্গিপুর থেকে সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত না হলে সাগরদিঘি পিছিয়ে থাকত এক শতক পিছনে! ২০০৪ সালে লোকসভার এমপি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার বছর খানেক পরে গোসাই গ্রামে সংবর্ধনা সভায় যখন গিয়েছিলেন এলকেজির ছাত্র আসলাম স্কুলড্রেস পরেই বাবার সঙ্গে গিয়েছিল সেই সভায়! আশ্চর্যজনকভাবে প্রণব বাবু সেদিন ভিড়ের মাঝ থেকে ডেকে নিয়েছিলেন আসলাম কে! পাশের চেয়ারে বসিয়ে জিজ্ঞেস করেন সে কিসে পড়ে! তার পছন্দ,এলাকায় কি সমস্যা রয়েছে! সে জানায়, ডনবস্কোতে এলকেজিতে পড়ে! সমস্যা রাস্তার! সেজন্য তার বাবা বাড়ি থেকে দু কিলোমিটার আলপথে সাহাপুরে সাইকেলে করে নিয়ে যায়, সেখানে অপেক্ষা করে স্কুল ভ্যান! তৎকালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী তাকে বলেন সে ওই সমস্যা নিয়ে যেন কয়েক লাইন লিখে। লেখা শেষ হলে তা দেখে মাথায় হাত বুলিয়ে শুধু বলেন গুড বয়! সপ্তাহ শেষ হওয়ার আগেই শুরু হয় সমীক্ষা! এবং প্রণব বাবুর প্রভাবেই বরাদ্দ হয় সাত কোটি টাকা! যে ব্লকে এক কিমি রাস্তা পিচ ছিল না, বছর কয়েকের মধ্যেই ৪৬ কিমি রাস্তা পাকা হয়ে যায়! আসলাম ইংরেজি মাধ্যমে ৯০ শতাংশ নম্বর পেয়ে ১২ ক্লাস উত্তীর্ণ, সামনে নিট পরীক্ষা…. তার বাবা নুরুল হুদা মল্লিক বস্ত্র ব্যবসায়ী। তিনি বলছেন, সেই সময় সদর শহর বহরমপুর যেতে হলে বাসে সাগরদিঘি , তারপরে ট্রেনে খাগড়াঘাটে যেতে হত …৩১ কিলোমিটার রাস্তা পৌঁছাতে সময় লাগত ২ ঘণ্টারও বেশি! আর এখন যা ঝকঝকে রাস্তা হয়েছে ৪০-৪৫ মিনিটে অনায়াসে বাইকে পৌঁছানো যায়! ২০১১ সালে প্রণববাবু যখন কেন্দ্রের অর্থমন্ত্রী বিভিন্ন গ্রাম থেকে রাস্তা কিংবা টিউবওয়েল খারাপ নিয়েও ফোন করেছেন! প্রণব বাবু ঠিক কেমন ছিলেন এ থেকেই বোঝা যায়! মুর্শিদাবাদ জেলায় প্রণব বাবুর সঙ্গে যাদের কাজের অভিজ্ঞতা আছে , তাদের সবারই চেনা জানা। কলকাতা, দিল্লির মত রাশভারী প্রণব বাবু নন …. এ এক অন্য প্রণববাবু যেন …যে মুর্শিদাবাদ জেলার জঙ্গিপুর ‘ শিকড় হীন বিস্ময়কর ‘ প্রতিভাকে দিয়েছিল শিকড় ! তাইতো তার দ্বিতীয় বাসভূমির সাংবাদিক থেকে সাধারণ বাসিন্দা, প্রতিবেশীকে দিয়েছেন প্রশ্রয় !

দিয়েছেন অবাধ প্রশ্রয় ! ২০১১ সালে নবগ্রাম এর এক প্রচার সভায় বলেও দিলেন , কি করছে বাংলায় সরকার কিংবা পঞ্চায়েত ! একটা রাস্তা কি কল সারাতে গ্রাম থেকে অসহায় মানুষ ফোন করেন দেশের অর্থ মন্ত্রীকে!

[qws]Tags: Pranab Mukherjee

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel