জাতীয়

গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক ডাকল এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

GNE NEWS DESK: এবার কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ পড়লো গোর্খাল্যান্ড(Gorkhaland) ইস্যুতে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আলোচনা চেয়ে রাজ্যকে চিঠি দিল। চিঠি পাঠানো হয় রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব জিটিএ-র (GTA) প্রিন্সিপাল সেক্রেটারিকে। আবার তার সাথে চিঠি পাঠানো হয় গোর্খা জনমুক্তি মোর্চাকেও। কেন্দ্রের পাঠানো চিঠি পৌঁছায় বিমল গুরুং-র বাড়ির ঠিকানায়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ডাকা এই বৈঠক ৭ অক্টোবর সকাল ১১ টায়।

খবর সূত্র অনুযায়ী, রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব, জিটিএ-র প্রধান সচিব, দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক ও গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতিকে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের তরফ থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। কিন্তু এখন দেখার বিষয় এই যে বিমল গুরুংপন্থী গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ও জিএনএলএফ হাজির হয় কিনা। কারণ এর আগেও একটি ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের ডাক দিয়েছিল একবার কেন্দ্র জিটিএ নিয়ে। কিন্তু সেই বৈঠক শেষপর্যন্ত বাতিল হয়ে যায়।

প্রসঙ্গতঃ দার্জিলিং-এর সাংসদ রাজু বিস্তা কেন্দ্রের কাছে গোর্খাল্যান্ড এর দাবি জানান -কাশ্মীরকে ভেঙে দুটো পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার পরই। তিনি দাবি জানিয়েছেন গোর্খাল্যান্ড না হলেও একটি পৃথক অঞ্চলের। এবার সেই ইস্যুতেই আগামী ৭ অক্টোবর কেন্দ্র নয়াদিল্লিতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের ডেকেছে।

এবার প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপে গোর্খাল্যান্ড তৈরির বিষয়ে। অনেক আগেই গোর্খাল্যান্ড নিয়ে দাবি রেখেছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার( গোজমুমো) নেতা বিমল গুরুং বিজেপির অবস্থানকে সমর্থন করে। দার্জিলিং পার্বত্যাঞ্চলের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধানের যে প্রতিশ্রুতি বিজেপি দিয়েছিল তা বাস্তবে করে দেখাক তারা, ঠিক এমনটাই দাবি উঠে আসে গুরুং নেতৃত্বাধীন মোর্চার তরফ থেকে।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel