প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
জাতীয়

আবারও এক সাহসী সিদ্ধান্ত, রেড মিট থেকে হালাল (halal) শব্দ তুলে দিয়ে নজির সৃষ্টি করলো মোদী সরকার

GNE NEWS DESK:গরু-মহিষসহ সব ধরনের প্রক্রিয়াজাত রেড মিট থেকে হালাল(halal) শব্দটি সরিয়ে দিয়েছে ভারত সরকার। হালাল শব্দটি মুসলমান রফতানিকারকদের ব্যবসায় বেশি সুবিধা দিয়ে আসছিল এ কথা সকলের জানা।যে কোন রেস্টুরেন্টে বড়বড় করে লেখা থাকত “এখানে হালাল মাংস পাওয়া যায়”। ফলে মার খাচ্ছিল অন্যান্য ব্যাবসায়ীরা। এমন অভিযোগ ওঠার পরপরই হালাল শব্দটি সরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।

এগ্রিকালচারাল অ্যান্ড প্রসেসড ফুড প্রডাক্টস এক্সপোর্ট ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (এপিইডিএ) ম্যানুয়ালের পরিবর্তিত সংস্করণে লেখা হয়েছে, আমদানিকারক দেশ বা আমদানিকারকদের চাহিদা অনুযায়ী প্রাণী বধ করা হয়েছে। কিন্তু তাদের আগের সংস্করণে লেখা ছিল, ইসলামি দেশগুলোর চাহিদা কঠোরভাবে মেনে প্রাণীদের হালাল (halal) পদ্ধতিতে জবাই করা হয়েছে।

‘হালাল’(halal) শব্দটি নিয়ে হিন্দু সংগঠনগুলো অনেক দিন ধরেই মুখর হয়ে উঠেছে। অনেকে অভিযোগ করেছেন, এপিইডিএ’র ম্যানুয়ালে হালাল শব্দের ব্যবহারের অর্থ আমদানিকারকদের শুধু হালাল সার্টিফিকেট পাওয়া মাংস নিতে বাধ্য করা। এ ধরনের সার্টিফিকেট যারা দিচ্ছেন না তারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

তাদের বক্তব্য, শুধু পশ্চিম এশিয়ার ইসলামি দেশগুলোতেই নয়, চীনের মতো দেশেও মাংস রফতানি করে ভারত। সেখানে হালাল(halal) সার্টিফিকেট জরুরি নয়। শ্রীলঙ্কায়ও মাংস সরবরাহ করে দিল্লি। হালাল সার্টিফিকেশন সেখানে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এরপরও আমদানির জন্য মাংস মাত্রই হালাল শব্দের ব্যবহার নিষ্প্রয়োজন বলে মনে করা হচ্ছে।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel