প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
রাজনীতিজেলা

শুভেন্দুর জেলা থেকে উন্নয়নের জন্য বরাদ্দ টাকা ফেরালেন সাংসদ দেব

GNE NEWS DESK: ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত ৭ টি বিধানসভা কেন্দ্রের ৬টি রয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরে এবং পাঁশকুড়া পশ্চিম বিধানসভা আসনটি পূর্ব মেদিনীপুরে অবস্থিত। সম্প্রতি সেই কেন্দ্রের জন্য পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় তাঁর সাংসদ তহবিলের বরাদ্দ দিয়েও পরে ফিরিয়ে নিয়েছেন ঘাটালের সাংসদ দেব।

সাংসদ তহবিলে প্রতি বছরে ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়। প্রথম বছরের বরাদ্দ খরচ হলে তবেই দ্বিতীয় বছরের বরাদ্দ দেওয়া হয়। শেষ ২০১৯- ’২০ অর্থবর্ষের বরাদ্দ পেয়েছেন সাংসদেরা। করোনা অতিমারির কারণে সাংসদ তহবিলের টাকা বরাদ্দ আগামী দুই বছরের জন্য বন্ধ করা হয়েছে। বরাদ্দ সাংসদ তহবিলের অর্থ প্রশাসন, সাংসদের সুপারিশ অনুযায়ী খরচ করে। ঘাটালের সাংসদ দেব তাঁর সাংসদ তহবিলের অর্থ তাঁর লোকসভা কেন্দ্রের অধীনস্থ বিধানসভাগুলির মধ্যে ভাগ করে দিয়েছিলেন।

পাঁশকুড়া পশ্চিম কেন্দ্রের জন্য বরাদ্দ অর্থ পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনকে চিঠি লিখে বরাদ্দ টাকা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে ফেরত নেওয়ার কথা জানান সাংসদ। সেই নির্দেশ কার্যকর করাও হয়েছে।

তাতেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। এই ঘটনার সময় পূর্ব মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শুভেন্দু অধিকারীর সাথে দলের অভ্যন্তরের সমস্যা কদর্য আকার নিয়ে প্রকাশ্যে এসেছে। ফলে অনেকেই এই সিদ্ধান্তের পিছনে রাজনৈতিক পদক্ষেপ দেখছেন। সাংসদ দেব রাজনৈতিক মতভেদের উর্দ্ধে উঠে কাজের পক্ষপাতী। তাই তাঁর এই পদক্ষেপ নিয়ে সমালোচনাও হচ্ছে বেশি।

যদিও দলের তরফে জানানো হয়েছে করোনা পরিস্থিতির কারনে ওই টাকায় মাস্ক ভেন্ডিং মেশিন কিনে কয়েকটি স্কুলকে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে ঘাটালের সাংসদের। তাই সাময়িক ভাবে বরাদ্দ ফিরিয়ে নেওয়া হলেও তা পুনরায় দেওয়া হবে।

তৃণমূলের পাঁশকুড়া ব্লক সভাপতি দীপ্তি জানা বলেন, “করোনা অতিমারির সময় পাঁশকুড়া পশ্চিম বিধানসভা এলাকা থেকে ঘাটালের সাংসদ তহবিলের বরাদ্দ টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে অন্য খাতে খরচের জন্য। সাংসদ ওই বরাদ্দ টাকা শীঘ্রই ফেরানোর আশ্বাস দিয়েছেন। ওই টাকায় যে সমস্ত উন্নয়নমূলক প্রকল্পের প্রস্তাব জমা দেওয়া হয়েছিল, টাকা হাতে পেলে দ্রুত সেই কাজগুলি শুরু হবে।”

আশ্বাস দিয়েছেন ঘাটালের সাংসদ প্রতিনিধি রামপদ মান্নাও, “ওখান থেকে বরাদ্দ ফেরানো হয়েছে ঠিকই তবে পরে ফের ওখানে বরাদ্দ দেওয়া হবে।”
তবুও বিতর্ক বিশেষ প্রশমিত হচ্ছে না।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel