প্রথম পাতা করোনা আপডেট আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
রাজনীতিরাজ্য

গোড়ায় গন্ডগোল! নুসরাতের শিক্ষাগত যোগ্যতার গরমিল, হলফনামায় উচ্চমাধ্যমিক কিন্তু লোকসভার সাইটে অনার্স গ্র্যাজুয়েট

Nusrat Jahan in the heat of information again. Now look at his educational qualifications. The affidavit submitted by him to the Election Commission in the Lok Sabha elections and the information on educational qualifications provided on the Lok Sabha website do not match.

GNE NEWS DESK: ফের তথ্যের গরমিলে নুসরাত জাহান। এবার নজরে তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা। লোকসভা নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের কাছে তাঁর জমা দেওয়া হলফনামা ও লোকসভার ওয়েবসাইটে প্রদত্ত শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কিত তথ্যে মিল নেই।

অভিনেত্রী সাংসদের জমা দেওয়া হলফনামা অনুযায়ী তিনি উচ্চমাধ্যমিক পাশ। ২০০৮ সালে ভবানীপুর গুজরাটি এডুকেশনাল সোসাইটি থেকে তিনি উচ্চ মাধ্যমিক পাশ পাশ করেছেন। কিন্তু লোকসভার ওয়েবসাইটে তথ্য ভিন্ন।

সেখানে উল্লেখ রয়েছে ভবানীপুর গুজরাটি এডুকেশনাল সোসাইটি থেকে তিনি অনার্স সহ বি.কম পাশ করেছেন। যা ঘিরে নতুন করে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

GNE

এর আগে বিতর্ক তৈরি হয় অভিনেত্রীর বক্তব্য ঘিরে। বিবৃতিতে নুসরত জানান, ”নিখিলের সঙ্গে সহবাস করেছি, বিয়ে হয়নি। তুরস্কের বিয়ে বৈধ নয়। তাই বিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না।” কিন্তু লোকসভার সাইটের তথ্য অনুযায়ী তিনি বিবাহিতা, তাঁর স্বামীর নাম নিখিল জৈন।

এমনকি লোকসভায় শপথ গ্রহণের সময় নিজের নাম ‘নুসরত জাহান রুহি জৈন’ হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন সাংসদ। এরপরেই সংসদে মিথ্যাচারের অভিযোগে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়। পুনরায় সামনে এলো তথ্য সংক্রান্ত বিতর্ক।

Related Articles

x