More

    দেবী দুর্গার মূর্তি তৈরীতে কেন বেশ্যার দুয়ারের মাটি দরকার হয়

    দেবী দুর্গার মূর্তি তৈরীতে কেন বেশ্যার দুয়ারের মাটি দরকার হয় জেনে নিন...

    spot_img

    Must Read

    দেবী দুর্গার মূর্তি তৈরীতে কেন বেশ্যার দুয়ারের মাটি দরকার হয়? কথায় বলে প্রতিটি মেয়ের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছেন দেবী দূর্গা। মেয়েরা দশভূজা, এমন কথা তো হামেশাই শোনা যায়। আবার এই নারী দেহেই যাবতীয় কামনা বাসনা মেটানোর রসদ খুঁজে নেয় পুরুষ সমাজ। এ রীতি সেই প্রাচীন কাল থেকেই চলে আসছে। ভারতীয় পুরানে বহু দেব দেবতা অসংখ্যবার বহুগামী হয়েছেন। তাঁদের কামনা বাসনা তৃপ্ত করতে গিয়ে বলি হতে হয়েছে বহু নারীকে।

    মহাভারতে কর্ণ পঞ্চপান্ডব পত্নী দ্রৌপদীকে ‘পতিতা’ বলে অভিহিত করেছিলেন। পতিতা শব্দের অর্থ যিনি বহুগামিনী হয়েছেন। দেহপসারিকা, গণিকা, পতিতা এই ধরনের শব্দগুলি সাধারণ মানুষের মনে নিয়ে আসে একরাশ ঘৃণা, শ্লেষ। অথচ সমাজের যাবতীয় পাপের হলাহল পান করে নীলকণ্ঠ হয়েছেন এই পতিতারাই। তাই তো দূর্গাপুজোর কাঠামো তৈরিতে গণিকালয়ের মাটি আবশ্যক। এর আসল কারণটি জানেন কি?

    সাধারণত জন্মাষ্টমী বা রথে প্রতিমার কাঠামো পুজো হয়। একমাটি, দু’মাটি করে ধীরে ধীরে শিল্পীর হাতে মৃন্ময়ী রূপ পান দেবী। শাস্ত্র মতে মায়ের আদল যখন শিল্পী ফুটিয়ে তোলেন তখন তাঁর প্রয়োজন হয় গাভীর মূত্র, ধানের শিস, গোবর, গঙ্গার জল ও নিষিদ্ধপল্লীর মাটি। বলা হয় পতিতালয়ের মাটি না হলে দেবীর মূর্তি সম্পূর্ণ হয় না। সমাজ যাদের একঘরে করে রেখেছে, যেখানে দিনের আলো প্রবেশ করতেও কুন্ঠা বোধ করে সেই দেহপসারিনীদের আবাসস্থল নাকি দেবীমূর্তি তৈরির অপরিহার্য অঙ্গ।

      সংরক্ষিত হবে পুজো উদ্বোধনে মমতার আঁকা দুর্গা
      পুরুলিয়ায় উদ্ধার মহিলার ঝুলন্ত দেহ

    বলা হয়, কোনও পুরুষ যখন গণিকালয়ে গিয়ে বারবনিতার সঙ্গে মিলিত হয়ে ফিরে আসেন তখন তিনি তাঁর জীবনের সমস্ত সঞ্চিত পূণ্য সেখানেই রেখে আসেন। সঙ্গে করে নিয়ে আসেন পাপের ঘড়া। আর সমাজের সমস্ত পাপকে নিজেদের মধ্যে নিয়ে সমাজের শুচিতা বজায় রাখেন পতিতারা।

    নারীর থেকে পুরুষের জন্ম হয়। তাঁদের পতিতা বানায় পুরুষই। তাই মাকে অপবিত্র, অসম্মান করার অধিকার কারও নেই। অকাল বোধনে দেবী যে ন’টি রূপে পূজিতা হন তাঁর নবম রূপটি পতিতালয়ের প্রতিনিধিত্ব করে বলে মানুষের বিশ্বাস।

    - Advertisement -

    Latest News

    পশ্চিমবঙ্গের করোনা আপডেট ২৭/১০/২০২১

    আজ ২৭শে অক্টোবর ২০২১ পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন থেকে জানা গেছে পশ্চিমবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৭৬ জন করোনা...
    - Advertisement -

    More Articles Like This

    - Advertisement -