রাজনীতিরাজ্য

দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে জঙ্গলমহলের রাজনৈতিক সমীকরণ

জঙ্গলমহলের জনজাতি গুলির আন্দোলনের উপর নির্ভর করে রাজনৈতিক পটপরিবর্তন হচ্ছে জঙ্গলমহল জুড়ে। একদিকে, সরকারি তালিকাভুক্ত আদিবাসী সম্প্রদায়গুলো তাদের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে আন্দোলন করে আসছে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে, সরকারি তালিকায় স্থান পাওয়ার জন্য স্বাধীনতার পর থেকেই আন্দোলন করে আসছে জঙ্গলমহলের একক বৃহত্তম জনগোষ্ঠী “কুড়মি”রা।

জঙ্গলমহলের রাজনৈতিক সমীকরণ অনেকটাই নির্ভর করে কুড়মিদের অবস্থানের উপর। জঙ্গলমহলে প্রায় ৪২ শতাংশ কুড়মি জনজাতির মানুষের বসবাস। ফলে এই বিপুল পরিমাণ ভোট যে রাজনৈতিক দলের দিকে সুইং করবে, সেই রাজনৈতিক দলের হাতেই যাবে জঙ্গলমহলের রাশ। আর একটা অলিখিত প্রবাদ রয়েছে ‘জঙ্গলমহলই রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পথ প্রদর্শক’। পূর্বতন বাম সরকারের পতনের পথ সুনিশ্চিত করেছিল এই জঙ্গলমহল। আবারও রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পথপ্রদর্শক হয়ে উঠতে চলেছে জঙ্গলমহল। যা বিগত পঞ্চায়েত ও লোকসভা নির্বাচনে সেই ইঙ্গিত দিয়েছে জঙ্গলমহলবাসী। আর এই পটপরিবর্তনের নেপথ্যে রয়েছে কুড়মি জাতির ভোটব্যাংক, এমনটাই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

বিগত পঞ্চায়েত ও লোকসভা নির্বাচনে এই সম্প্রদায়ের ভোটেই বিপর্জয়ের মুখে পড়ে রাজ্যের শাসক দল। কারন তারা লাগাতার সরকার বিরোধী আন্দোলন চালিয়ে আসছিল তখন থেকেই। আর সেই সময় শাসক দলের একাধিক নেতা নেত্রীদের অবস্থান ভালো চোখে নেয়নি। এবং বিভিন্ন সভা সমাবেশ থেকে বিজেপি প্রতিশ্রুতি দিতে থাকে তারা ক্ষমতায় এলে তাদের সমস্যার সমাধান করে দিবে। সেই আশ্বাসে কুড়মি সমাজের ভোট ব্যাংক বিজেপির দিকে সুইং করে। ফলে জঙ্গলমহলের এই ডাহি জমিতেও পদ্ম ফুল ফুটে।

বিজেপির প্রতি মোহভঙ্গ হতে চলেছে কুড়মিদের। বিজেপির দেওয়া প্রতিশ্রুতি তারা পালন করেনি বলেই অভিযোগ তুলছে তাদের সামাজিক সংগঠন গুলি। এবং এই মুহূর্তে তাদের দাবি লোকসভায় জোরদার সাওয়াল করতে দেখা গেছে কংগ্রেস সাংসদ তথা বিরোধী দল নেতা অধীর চৌধুরীকে। ফলে জঙ্গলমহলের “কুড়মিরাও” ভরসা করতে শুরু করেছে অধীর চৌধুরীকে। তার প্রমাণ পাওয়া যায় ঝাড়গ্রামে অধীর চৌধুরীকে সম্বর্ধনা প্রদান করার মধ্য দিয়ে। ফলে ২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে জঙ্গলমহলের রাজনৈতিক সমীকরণ পুনরায় পরিবর্তন হতে পারে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। কারন কুড়মি জাতির ভোট ব্যাংক যদি কংগ্রেসের দিকে ঝুঁকে পড়ে। তাহলে নিশ্চিত জঙ্গলমহলে কংগ্রেসের মরা গাঙ্গে জোয়ার আস্তে পারে।

যদিও এখনেই বলা যাচ্ছে না কি হতে পারে পরবর্তী রাজনৈতিক সমীকরণ। তবে গতিপ্রকৃতি অন্য রাজনৈতিক সমীকরণের ইঙ্গিত দিচ্ছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।


Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close