রাজ্যজেলা

যাত্রী কম, ভাড়া বাড়িয়ে গ্রিন জোনে বাস নামানোর উদ্যোগ

তৃতীয় দফার লকডাউনের মধ্যে গ্রিন জোনে বাস চলাচলে ছাড় দিয়েছে প্রশাসন। তবে বাস চালাতে হলে মেনে চলতে হবে সরকারি বিধি নিষেধ। বাসে যাতায়াতকারী প্রত্যেক যাত্রীর মুখে মাস্ক থাকা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একইসঙ্গে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বাসে ২০ জনের বেশি যাত্রী নেওয়া যাবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি। আর এতেই বিপত্তিতে পড়েছেন বাস মালিকরা। মাত্র ২০ জন যাত্রী নিয়ে গিয়ে তেলের দাম ও কর্মচারীদের খরচ তোলা অসম্ভব। অগত্যা বাস না নামানোর পথেই হেঁটেছেন তাঁরা। ফলত, ৪ ঠা মে থেকে গ্রিন জোনের জেলাগুলিতে বাস চলাচলের অনুমতি মিললেও রাস্তায় দেখা মেলেনি কোন বাসের।

এবার সমস্যা মেটাতে মাঠে নেমেছে পরিবহন দপ্তর। ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারের বেসরকারি বাস মালিক সংগঠনগুলোর সঙ্গে বৈঠক করল পরিবহন দপ্তর। বৃহস্পতিবার, সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনের উপস্থিতিতে পরিবহন দপ্তরের আধিকারিক ও বেসরকারি বাস মালিক সংগঠনের প্রতিনিধিদের এই বৈঠকে সমাধান সূত্র উঠে আসে। বাস মালিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা কম যাত্রী নিয়ে বাস চালালে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

এই কীভাবে মেটানো সম্ভব তা জানতে চাইলে, ভাড়া বাড়ানোর প্রসঙ্গ উঠে আসে বৈঠকে। শেষ পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্তে সিলমোহর দেয় পরিবহন দপ্তর ও প্রশাসন। তবে বাসের ভাড়া কোন মতেই দ্বিগুণের বেশি বাড়ানো যাবে না বলে প্রশাসনের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে। আপাতত ভাড়া বাড়িয়েই গ্রিন জোনের ৭ টি জেলাতে রাস্তায় বাস নামানো হবে বলে জানিয়েছে পরিবহন দপ্তর।

Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Close