রাজ্য

ক্লান্ত অবসন্ন পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করল প্রশাসন

টানা পঁয়তাল্লিশ দিনের বেশি লক ডাউন এর ফলে কাজ হারানো পরিযায়ী শ্রমিকরা আর থাকতে পারেনি ভিন রাজ্যে অভুক্ত, অর্ধ ভুক্ত ভাবে।তারা এখন জীবন বিপন্ন করে বেরিয়ে পড়েছেন মাইলের পর মাইল হেঁটে নিজের বাড়ি পৌঁছানোর আশায়। এরকমই প্রায় হাজারখানেক পরিযায়ী শ্রমিক গত দুদিন ধরে পশ্চিমবঙ্গের উড়িষ্যা সীমান্ত দিয়ে হাতিবাড়ি চেকপোস্ট দিয়ে বাংলার সীমান্তে প্রবেশ করেন।এরা সবাই পায়ে হেঁটে এসেছেন বাংলার মুর্শিদাবাদ, নদিয়া,মালদহ, পূর্ব মেদিনীপুর সহ ঝাড়গ্ৰামের বিভিন্ন গ্রামে ফেরার উদ্দেশ্যে।হাতিবাড়ি চেকপোস্টে আসার পর প্রতি শ্রমিকের স্বাস্থ্য পরিক্ষার পর ঝাড়গ্ৰাম জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সরকারি বাসে তাদের নিজের জেলায় পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

সঙ্গে দীর্ঘদিন পথ চলতে চলতে অভুক্ত ক্লান্ত শ্রমিকদের হাতে শুকনো খাবার তুলে দেন পুলিশ আধিকারিকরা। অন্যদিকে গোপীবল্লভপুর ১ নম্বর ব্লক তৃণমূলের পক্ষ থেকেও নিয়মিত হাতিবাড়ি চেকপোস্ট দিয়ে আসা শ্রমিকদের খাবার থেকে বাড়ি পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা সমস্ত খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে বলে জানান তৃণমূলের ছাত্র নেতা সত্যরঞ্জন বারিক।আজ দুদিন ধরে নিয়মিত শ্রমিকদের এই বাড়ি ফেরানোর প্রকৃয়া চলছে প্রশাসনের তরফ থেকে। কিন্তু মানুষের মনে একটা প্রশ্ন জাগছে হাঁটতে হাঁটতে সব শ্রমিক কি তার নিজের পরিবারের পাশে ফিরতে পারবেন? না রাস্তায় তাদের ফেরার স্মৃতি চিহ্ন থাকবে, কিন্তু তারা নিরাপদে ফিরবে কিনা তা বড় একটা প্রশ্ন চিহ্নের কাছে হার মানবে।

এবিষয়ে ছাত্র নেতা সত্যরঞ্জন বারিক আবেগ ভরা গলায় বলেন- লক ডাউন এর পর যে হাজার হাজার শ্রমিক দিল্লির রাস্তায় বাড়ি ফেরার জন্য বেরিয়েছিলেন, তাদের সবাই বাড়ি ফিরতে পেরেছেন কিনা তার খোঁজ আজ কেউ করছে না।

Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Close