একুশের আগে রাজনৈতিক চাপানউতর, জঙ্গলমহলের হেভিওয়েট নেতাও সাড়া দিলেন না মুকুল-কৈলাসের ডাকে

Before Ekushey, due to political pressure, even the heavyweight leader of Jangalmahal did not respond to the call of Mukul-Kailas.

GNE NEWS DESK: সম্প্রতি মুকুল রায়কে পাশে নিয়ে জঙ্গলমহল সফরে গিয়েছিলেন বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গী (koylas vijaywargi)। তবে সেখানে যাওয়ার উদ্দেশ্য ব্যার্থ হলো তাদের। ফেরাতে পারলেন না বিজেপির এক হেভিওয়েট নেতাকে। আর সেই কারণে জল্পনার সাথে বিজেপির অস্বস্তিও বাড়ল একুশের ভোটের আগে।

উল্লেখ্য, লোকসভা ভোট প্রচারে ঝড় তুলে এই নেতা বিজেপির হয়ে ভালো ফল লাভ করেছিল। কিন্তু তার পরিবর্তে তিনি কোনোরকম মর্যাদা পাননি। আর সেই কারণে বিজেপির নেতৃত্বর সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয় তার। আর বর্তমানে একুশের ভোটের আগে সেই বিরোধ মেটানোরই চেষ্টা করছে বিজেপির নেতৃত্বগণ।

খবর সূত্রে জানা যায়, লোকসভা নির্বাচনে প্রচারের জন্য নিজের থেকে ১০ লক্ষ টাকা খরচ করেছিলেন বিজেপির যুব মোর্চার প্রাক্তন ওই জেলা সভাপতি অনুরণ সেনাপতি (anuran senapati)। কিন্তু বারবার আবেদন করার পরও সেই টাকা দলের তরফ থেকে তাকে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। তিনি একঘরে হয়ে গিয়েছিলেন দলের তরফ থেকে।

এছাড়াও তিনি দলের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ তুলে জানান, তাঁর টাকাকে ব্যাবহার করে দলের শৃঙ্খলাভঙ্গের জন্য যুব মোর্চার জেলা সভাপতির পদ থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়। আর এরপরেই তিনি আলাদা ভাবে জনসংযোগ করে। তাঁর অনুগামীরা অনেকেই তৃণমূলে যোগদান পর্যন্ত করেন। তাঁকেও তৃণমূলের অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা চালানো হয়। কিন্তু তৃণমূলে যোগ দেননি তিনি।

এখন সামনেই ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন। আর তার জন্যই অনুরণ সেনাপতিকে বিজেপিতে সক্রিয় করার চেষ্টা চালায় রাজ্য নেতৃত্ব। এর জন্য তাকে বিজেপির সদর দফতরে ডেকে পাঠানো হয় গত ৩০ আগস্ট। বিজেপি রাজ্য ও যুবমোর্চা নেতৃত্ব তাঁর সঙ্গে বৈঠক করেন। আর সেই বৈঠকে তাঁকে পদ দেওয়া হয় যুব মোর্চার রাজ্য সম্পাদক পদে। কিন্তু তবুও তাঁকে ফেরানো গেল না। সুতরাং রাজনৈতিক চাপানউতর পরিস্থিতি তে এটা সত্যিই ব্যার্থতা জনক।
[qws]Tags: আপডেট খবর,বাংলা খবর,করোনা আপডেট, আজকের রাশিফল, bengalinews, ভারতের খবর, আজকের খবর, আবহাওয়ার খবর,ঝাড়গ্রাম, উপকারিতা, দেশের খবর, আজকের নিউজ,

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel