রাজ্য

করোনা আবহে ‘বাঁদনা পরব’ ঘিরে ফের উৎসবে মেতে উঠতে চলেছে জঙ্গলমহল

GNE NEWS DESK : করোনা আবহে এখন মানুষ ভার্চুয়াল সংস্কৃতির সঙ্গে অভ‍্যস্ত হয়ে গিয়েছে। মিটিং-মিছিল থেকে শুরু করে বেশিরভাগ অনুষ্ঠানই এখন করা হয় ভার্চুয়াল ভাবে। এর মাঝেই আসছে বাদনা পরব। করোনার দাপটে রংতুলিতে সেজে উঠবে জঙ্গলমহল। জঙ্গলমহলে এখন দিকে দিকে উৎসবের রেস। জঙ্গলমহলে ঘরে ঘরে কাঁচা মাটির দেওয়ালে পরছে আলপনা তুলি, তুলির জাদুতে তৈরি হচ্ছে নানান নকশা।

উৎসবের আমেজে মেতে উঠেছে মেদিনীপুর সদর ব্লকের হেতাশোল, পিডরাশোল মালিয়াড়া-সহ জঙ্গল লাগোয়া গ্রামগুলি। সুখী ,বাবু সোনুদের হাতের তুলির জাদুতে তৈরি হয়েছে হাতি, ময়ূর, ঘোড়া সহ গ্রাম বাংলার নানান চিত্রকলা।

তাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উৎসবে মেতে উঠেছে মরমিয়া নামে এক সাংস্কৃতিক মঞ্চের সদস্যরাও। কালী পূজার সময় প্রতিবছর পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া সহ রাঢ় বঙ্গের বিভিন্ন অংশে এই বদনা উৎসব পালিত হয়। এই বাদনা উৎসব হলো আদিবাসীদের সর্বশ্রেষ্ঠ উৎসব।

পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ ,বীরভূম সহ বিহার ,ঝাড়খন্ড ,ত্রিপুরা আসাম প্রভৃতি রাজ্যে এই উৎসব পালন করা হয় পৌষ সংক্রান্তি সময়। এই বাদনা উৎসব চলে এক টানা পাঁচ দিন ধরে। ধামসা মাদলের সুরে এবং নানা রকম আদিবাসী রীতি-রেওয়াজ এর মধ্যে দিয়ে সাঁওতালদের দেবতা (বঙ্গাদের) স্বরন করা হয়।

পর্বের শেষ অংশ হলো বনদেবীর পুজো। হাঁড়িয়া, মহুলের বেদার আয়োজনের সঙ্গের টানা পাঁচদিন ধরে নাচ গানের মধ্যে দিয়ে উৎসবে মেতে ওঠে তারা। তবে করোনার দাপটে এ বছর অন্য বছরের তুলনায় একটু অন্যরকমভাবে উৎসব পালন করা হবে।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel