প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
রাজ্য

একাধিক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এফআইআর, বিরোধিতা করে বিবৃতি এডিটর্স গিল্ডের, টুইট মমতার

GNE NEWS DESK: গত ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসে কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিল ও আন্দোলন ঘিরে দিল্লিতে তীব্র বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। অনেক সাংবাদিক সেই ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে ও নিজেদের সমাজ মাধ্যমে প্রচার করেন। এরপরেই রাজদীপ সরদেশাই, মৃণাল পান্ডে, বিনোদ হোসে, জাফর আঘা, পরেশনাথ, অনন্ত নাথের মতো সাংবাদিকের পাশাপাশি কংগ্রেস সাংসদ শশী তারুরের বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশ ও মধ্যপ্রদেশে দেশদ্রোহ, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র এবং শত্রুতায় ইন্ধন জোগানোর মতো গুরুতর অভিযোগ এনে একাধিক মামলা দায়ের হয়।

এই ঘটনায় একাধিক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা করার তীব্র নিন্দা করল এডিটর্স গিল্ড অব ইন্ডিয়া। সংগঠনের মতে, সাংবাদিক হিসেবে কৃষক আন্দোলনে হিংসার ঘটনা জনসম্মুখে প্রকাশের কারনে তাঁদের নিশানা করা হচ্ছে এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে তাঁদের ভয় দেখানো হচ্ছে। সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে করা সমস্ত এফআইআর অবিলম্বে তুলে নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে সংগঠনের তরফে।

শুক্রবার সকালে বিবৃতি প্রকাশ করে গিল্ড। সংগঠনের সভাপতি সীমা মুস্তাফা এবং সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কপূর স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “২৬ জানুয়ারি রাজধানীতে কৃষি আন্দোলন চলাকালীন হিংসা নিয়ে খবর প্রকাশ করায় অভিজ্ঞ সম্পাদক এবং সাংবাদিক-সহ এডিটর্স গিল্টের বর্তমান এবং প্রাক্তন পদাধিকারিকদের ভয় দেখাতে উত্তরপ্রদেশ এবং মধ্যপ্রদেশে যে ভাবে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে, আমরা তার তীব্র নিন্দা করছি।”
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, “বিভিন্ন রাজ্যে দায়ের হওয়া এফআইআরগুলি সংবাদমাধ্যমকে ভয় দেখানো, হেনস্থা করা, চোখ রাঙানো এবং কণ্ঠরোধের চেষ্টা ছাড়া আর কিছুই নয়। এফআইআরে দেশদ্রোহ, সাম্প্রদায়িক অশান্তিতে ইন্ধন জোগানো, ধর্মীয় ভাবাবেগকে আঘাত করা যে অভিযোগ আনা হয়েছে, তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। সাংবাদিকদের এ ভাবে নিশানা করা আমাদের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে শুধু লঙ্ঘনই করছে না, তাকে পদদলিত করছে।”

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে এই রূপ ঘটনার বিরোধিতা ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি টুইট করেন, “অভিজ্ঞ সাংবাদিক রাজদীপ সরদেশাইয়ের সঙ্গে যা হচ্ছে তাতে স্তম্ভিত আমি। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হল, অধিকাংশ সংবাদমাধ্যমই এ ব্যাপারে নীরব। গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থায় আওয়াজ তুলতেই হবে আমাদের। কারণ সংবাদমাধ্যমই গণতন্ত্রের অন্যতম স্তম্ভ।”

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel