প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
রাজ্যভোটযুদ্ধরাজনীতি

কঙ্কাল কান্ডে কুখ্যাত বেনাচাপড়া গ্রামে সুশান্ত ঘোষ, পুষ্পবৃষ্টিতে সম্বর্ধনা

GNE NEWS DESK: অবশেষে বৃত্ত সম্পন্ন হল। যে কঙ্কাল কান্ডে অভিযুক্ত হয়ে গেলে কাটিয়েছেন, দীর্ঘ প্রায় নয় বছর থেকেছেন জেলার বাইরে সেই কঙ্কাল কান্ডে কুখ্যাত বেনাচাপড়া গ্রামে জনসংযোগে গেলেন সুশান্ত ঘোষ। সম্বর্ধনা পেলেন ফুলে।

মেদিনীপুরে প্রত্যাবর্তনের পরেই সম্বর্ধনা সভায় সুশান্ত ঘোষ অভিযোগ করেছিলেন, কঙ্কাল কান্ডে তাঁকে ফাঁসানো হয়েছিল। জেলায় ফিরে সুশান্ত বাবু বলেছিলেন, “এত বোকামো কেউ করে! দশ বছর পর মানুষগুলোর হাড়গোড় ছেড়ে গেল, অথচ গেঞ্জি আর আন্ডারওয়্যার অক্ষত রইল! সব প্রমাণ হবে বিচারে।

সুশান্ত ঘোষকে চক্রান্ত করে ফাঁসানো হয়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা সিআইডি হেফাজতে জেরা। মানসিক নির্যাতন। যাতে আমি পাগল হয়ে যাই বা মারা যাই। যে দিন লাল ঝান্ডার পার্টি করতে শুরু করেছি, সেদিনই বুঝেছি মিথ্যে মামলা হবে, জেল খাটতে হবে। আপনারা লাল ঝান্ডার সঙ্গে থাকুন। আগামী দিন লাল ঝান্ডারই দিন।” সেই একই সুর এবার প্রতিধ্বনিত্ব হচ্ছে জঙ্গলমহলের গ্রামে।

একদা বিধায়ক ও বাম আমলের দাপুটে মন্ত্রী সুশান্ত ঘোষ। বাম জমানার পতনের পরেই অভিযুক্ত হয়েছিলেন কঙ্কাল কান্ডে। তারপর দীর্ঘদিন কাটিয়েছেন জেলে। দীর্ঘ নয় বছর অনুমতি পাননি নিজের জেলায় ফেরার। তারপর সুপ্রিম কোর্টের অনুমতিতে গত কয়েকমাস আগেই ফিরেছেন নিজের পুরাতন বিচরণ ক্ষেত্রে। কর্মী সমর্থকদের কাছে প্রত্যাবর্তনের দিন পেয়েছিলেন বিপুল সম্বর্ধনা।

তারপর পুনরায় ঝাঁপিয়ে পড়েছেন রাজনৈতিক কর্মকান্ডে। তাঁর প্রত্যাবর্তনের প্রভাবও পরিলক্ষিত হচ্ছে জঙ্গলমহলে। দল তাঁকে দায়িত্ব দিয়েছে জঙ্গলমহলে সংগঠনকে চাঙ্গা করার। এরপরেই একের পর এক জনসংযোগ কর্মসূচি নিচ্ছেন সুশান্ত ঘোষ। ঘুরছেন বিভিন্ন গ্রামে। এমনকি তাঁর নেতৃত্বে হরতাল সহ বামেদের বিভিন্ন কর্মসূচির প্রভাবও পরিলক্ষিত হচ্ছে। কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বামেদের হরতালের প্রভাব গোটা জঙ্গলমহলেই পড়েছিল।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel