কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাস থেকে মামলা সরে গিয়েছে বিচারপতি সিনহার এজলাসে। সেখানেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সিবিআই ও ইডির যাতে চটজলদি তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ না নিতে পারে সে জন্য অন্তর্বর্তী রক্ষাকবচের আর্জি জানান। কিন্তু রক্ষাকবচ দিলেন না বিচারপতি সিনহা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কুন্তল ঘোষের ইডি ও সিবিআই এর বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশের কাছে পাঠানো চিঠি সংক্রান্ত মামলায় প্রয়োজনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও কুন্তল ঘোষকে ইডি ও সিবিআই প্রশ্ন করতে পারবে বলে নির্দেশ দিয়েছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। “অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম বলতে তদন্তকারীরা চাপ দিচ্ছেন”, এমন অভিযোগ এনে প্রেসিডেন্সি জেলের সুপারের মাধ্যমে হেস্টিংস থানায় অভিযোগপত্র পাঠিয়েছিলেন নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ধৃত কুন্তল ঘোষ। সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন অভিষেক। মামলা বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাস থেকে বিচারপতি সিনহার এজলাসে আসে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে।

জনপ্রিয় খবর:  Kurmi Arrest : ফের গ্রেপ্তার কুড়মি আন্দোলনকারী, পুলিশি অত্যাচারের অভিযোগ, ৬ জুন কুড়মি সমাবেশ

এরপর বিচারপতি সিনহার নির্দেশে বৃহস্পতিবার মামলায় যুক্ত হয়ে মামলা থেকে অব্যহতি চান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বিচারপতি অভিষেককে তদন্তে সহযোগিতা করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এখন রক্ষাকবচও দেওয়া হল না অভিষেককে৷