BRAKING NEWS

Abhishek Banerjee : অভিষেকের হাইকোর্ট বিড়ম্বনা! আবেদন গৃহীতই হল না

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাইকোর্ট বিড়ম্বনা! একের পর এক বেঞ্চে খারিজ হল কুন্তল ঘোষের চিঠি সংক্রান্ত মামলায় তাঁর দ্রুত শুনানির আবেদন। প্রথমে বিচারপতি সুব্রত তালুকদার এবং বিচারপতি সুপ্রতিম ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ ও পরে প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম এবং বিচারপতি হিরণ্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে খারিজ হল দ্রুত শুনানির আবেদন। তারই মাঝে শনিবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিজাম প্যালেসের দপ্তরে তলব করেছে সিবিআই।

কুন্তল ঘোষের ইডি ও সিবিআই এর বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশের কাছে পাঠানো চিঠি সংক্রান্ত মামলায় প্রয়োজনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও কুন্তল ঘোষকে ইডি ও সিবিআই প্রশ্ন করতে পারবে বলে নির্দেশ দিয়েছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন অভিষেক। মামলা বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাস থেকে বিচারপতি সিনহার এজলাসে আসে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে। এরপর আদালতের নির্দেশ পুনর্বিবেচনা বা প্রত্যাহারের জন্য বিচারপতি সিনহার এজলাসে আবেদন করেন অভিষেক। বৃহস্পতিবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদন খারিজ করে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশ বহাল রেখেছেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা। সেই সঙ্গে অভিষেকের আবেদনের কোনো সারবত্তা না মেলায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কুন্তল ঘোষকে ২৫ লক্ষ টাকা করে মোট ৫০ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন বিচারপতি।

শুক্রবার সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করেন অভিষেক ও কুন্তল। কিন্তু বিচারপতি সুব্রত তালুকদার এবং বিচারপতি সুপ্রতিম ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ জরুরি ভিত্তিতে আবেদন শুনতে রাজি হয়নি। এরপর কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম এবং বিচারপতি হিরণ্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে দ্রুত শুনানির আবেদন জানান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সেই আবেদনও গৃহীত হয়নি। প্রধান বিচারপতি জরুরি ভিত্তিতে আবেদন শোনা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়ে, অভিষেক ও কুন্তলকে হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চে আবেদন জমা দেওয়ার অনুমতি দেন।

 

Leave a Reply