জেলা

তৃণমূল নেতা ছত্রধরের গ্রেফতারের দাবিতে আদালতে NIA

GNE NEWS DESK : সোমবার কলকাতায় এনআইএর বিশেষ আদালতে তারা ছত্রধার মাহাতকে গ্রেফতার করার আর্জি জানায়। কারণ তাদের দাবি বারংবার তাকে ডাকা সত্বেও সে গরহাজির ছিল। এই দাবিতে তাকে গ্রেফতার করার আর্জি জানিয়েছে এনআইএ। যদিও ছত্রধরের আইনজীবীর বক্তব্য শারীরিক অসুস্থতা বসত সে আদালতে উপস্থিত থাকতে পারিনি, ছত্রধর কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলেন এবং এমন অবস্থায় ঝাড়গাম থেকে কলকাতার আদালতে আশা তার পক্ষে সম্ভব ছিল না এবং করোনার পরও তার শারীরিক অসুস্থতার কারণে সে আদালতে উপস্থিত থাকতে পারছে না। এমনটাই দাবি করেছে ছত্রধরের আইনজীবী। এদিকে এনআইএর আবেদনের ভিত্তিতে আদালতের পক্ষ থেকে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি তবে আদালত জানিয়েছে এ বিষয়ে পরবর্তীকালে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ছত্রধর মাহাতোর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনেছে এনআইএ। নানান সন্ত্রাসবাদি কাজকর্মে বারংবার ছত্রধরের নাম উঠে এসছে। ২০০৯ সালের শেষের দিকে দিল্লি ভুবনেশ্বর রাজধানী এক্সপ্রেস হাইজ্যাকের ঘটনাতেও তার নাম উঠে এসেছে। এর পাশাপাশি পুলিশি সন্ত্রাসবিরোধী জনসাধারণের কমিটির শীর্ষ ছিলেন ছত্রধর মাহাতো। এছাড়াও ২০০৯ সালের ১৪ই জুন সিপিআইএম নেতা প্রবীর মাহাতো কে লালগড়ের ধরমপুরে খুন করা হয় এবং এই ঘটনার সঙ্গে ছত্রধর যুক্ত বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেই কারণে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা তাকে বারংবার জিজ্ঞাসাবাদ করে।

এই কারণেই NIA ছত্রধর মাহাতো কে নিজেদের হেফাজতে রাখতে চাইছে।এর পাশাপাশি একাধিক ঘটনায় তার নাম জড়িয়ে পড়তে দেখা যাচ্ছে। তাই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এখন ছাত্রধরকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য নিজেদের হেফাজতে পেতে চাইছেন। কিন্তু ছত্রধরের আইনজীবীর বক্তব্য, কোনভাবেই তদন্তে সহযোগিতা করতে চাইছে না সে ছত্রধর। শারীরিক অসুস্থতার কারণেই সে আদালতে উপস্থিত থাকতে পারছেন না। গত মাসেই আদালতে এসে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল ছত্রধর মাহাতো তারপর সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার আইনজীবী আদালতে আর্জি জানিয়েছেন, এই শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে কোন ভাবেই তার পক্ষে আদালতে আসা সম্ভব না তাকে যেন একটু সময় দেওয়া হয়।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel