জেলা

শক্তি বৃদ্ধি কুড়মি সমন্বয় মঞ্চের, খাতড়ার সভা থেকে কলকাতা অভিযানের ডাক

বাঁকুড়া, ১৬ ই অক্টোবর: পশ্চিমবঙ্গের কুড়মী সংগঠনগুলি একজোট হয়ে ‘কুড়মী সমন্বয় মঞ্চ’ গড়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের ডাক দিয়েছিল কয়েক মাস আগে। করম পরবের ছুটিকে কেন্দ্র করে কুড়মী সমাজের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিবাদে সোচ্চার হলেন সেই দাবী মেনে নেয় রাজ্য সরকার। এখন রাজ্য সরকার যখন জেলাভিত্তিক প্রশাসনিক সভা শুরু করেছেন ঠিক সেই সময় ঝাড়গ্রাম জেলার প্রশাসনিক সভার পর থেকে কুড়মী সমাজ সংগঠনগুলি আরো জোরদার আন্দোলনের ডাক দিচ্ছে। সংগঠনখগুলির অভিযোগ, কুড়মী অধ্যুষিত জেলায় বারবার কুড়মীদের বঞ্চিত করা হচ্ছে। তাই এই বঞ্চনার বিরুদ্ধে বৃহত্তর আন্দোলনের কুড়মি সমন্বয় মঞ্চ। আজ সেই আন্দোলনের রুপরেখা তৈরি হলো বাঁকুড়া জেলার খাতড়ার তিলোত্তমা লজে।

ঝাড়গ্রাম জেলার বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম স্বাধীনতা সংগ্রামী চুয়াড় বিদ্রোহের নায়ক শহীদ রঘুনাথ মাহাতোর নামে নামকরণের দাবী জানিয়ে বিগত কয়েক বছর আগেই জেলা এবং রাজ্য প্রশাসনের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছিলো। তারপরেও কুড়মী জনজাতি মানুষের দাবিকে নস্যাৎ করে দেওয়া হলো। যার ফলে কুড়মীরা আজ বাধ্যতামূলক বৃহত্তর আন্দোলনের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। আজকের সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, আগামী একমাসের মধ্যে ‘কুড়মী সমন্বয় মঞ্চ’ ঝাড়গ্রাম জেলা থেকে কুড়মী জনজাতির অধিকারের দাবিতে বৃহত্তর আন্দোলনের সূচনা করবে। এই সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজেশ মাহাত, বিপ্লব মাহাত, সৌমেন মাহাত (কুড়মী সমাজ); সহদেব মাহাত, সুদীপ কুমার রায় মাহাত (কুড়মী সেনা); অশোক মাহাত, অসীম মাহাত (আদিবাসী জনজাতি কুড়মী সমাজ); সমাজকর্মী লক্ষ্মী মাহাত, সুনীল মাহাত ও সুশীল মাহাত (যুগ্ম আহ্বায়ক, কুড়মী সমন্বয় মঞ্চ)। পূর্বাঞ্চল আদিবাসী কুড়মী সমাজের হংসেশ্বর মাহাত ও চক্রধর মাহাত আজকের এই সভায় যোগ দিয়ে কুড়মী সমন্বয় মঞ্চের বার্তাকে আরও জোরদার করে তুললেন।

আলোচনা সভার শেষে কুড়মী সমন্বয় মঞ্চের পক্ষ থেকে সংগঠনের মুখপাত্র মনোরঞ্জন মাহাত মহাশয় বলেন, আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে কুড়মী জনজাতির দাবীর স্বপক্ষে – ১. ঝাড়গ্রাম জেলার জেলাশাসকের দফতরের সামনে অনির্দিষ্ট কালের জন্য অবস্থান বিক্ষোভ। ২. পুরুলিয়া জেলা সহ গোটা জঙ্গলমহল জুড়ে কুড়মী জনজাতির ST-র দাবিতে ও কুড়মালি ভাষাকে অষ্টম তপসিলে অর্ন্তভুক্তির দাবিতে আন্দোলন এবং বিধানসভার সকল দলের দলনেতাকে বিধানসভায় ST বিলের দাবিতে চিঠি পাঠানো হবে। ৩. ডিসেম্বরে কলকাতায় মহামিছিল।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel