আন্তর্জাতিক

ভারতেই তৈরী হচ্ছে ভ্যাকসিন, তবুও যেচে ভারতকে ভ্যাকসিন দিতে চাইছে করোনার জন্মদাতা চীন

GNE NEWS DESK: সাম্প্রতিক সময়ে লাদাখ পরিস্হিতি নিয়ে চীন ও ভারতের সম্পর্ক ক্রমশ অবনতির দিকে গিয়েছে। ভারতীয় অর্থনীতিতে চীনা আগ্রাসন ঠেকাতে কেন্দ্রীয় সরকার একাধিক চীনা সফটওয়্যার, পণ্য নিষিদ্ধ করেছে।

সেই পরিস্থিতিতে ভারতকে বন্ধুত্বপূর্ণ বার্তা দিল চীন। BRICS দেশ গুলির ভার্চুয়াল সম্মেলনে মুখোমুখি হন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনফিং।
উক্ত বৈঠকে জিনফিং করোনা ভ্যাকসিন প্রস্তুতিতে ভারতে সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, চিনা কোম্পানিগুলি ব্রাজিল এবং রাশিয়ান কোম্পানিগুলির সঙ্গে তৃতীয় দফার ট্রায়ালের কাজ করছে। ট্রায়াল শেষ হলেই তার বানিজ্যিক প্রয়োগের চিন্তাভাবনা রয়েছে চিনের।

ভারত ছাড়াও প্রায় ১৯টি BRICS দেশগুলোকেও ভ্যাকসিন তৈরি, রিসার্চ এবং ভ্যাকসিন ট্রায়ালে সাহায্য করবেন তাঁরা। 

কূটনৈতিক মহলের মতে, চীন থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়ার কারণে এবং লাদাখ সীমান্তে আগ্রাসনের কারনে ভারত ছাড়াও একাধিক দেশের সঙ্গে চীনের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক খারাপ হয়েছে। তাই ভ্যাকসিন কূটনীতির মাধ্যমে তারা সেই সম্পর্ক পুনরুদ্ধারে সচেষ্ট।

যদিও অর্থনৈতিক মহল অন্য কথা বলছে। আন্তর্জাতিক অর্থনীতি ও দেশীয় বাজার চীনা অর্থনীতির প্রভাবমুক্ত করতে ভারত সহ বিভিন্ন দেশ সচেষ্ট। তাছাড়া করোনার কারনে পৃথিবীর ভ্যাকসিন ও ঔষধ বাজারে নতুন চাহিদা সৃষ্টি হয়েছে। চীন প্রকৃতপক্ষে সেই অর্থনৈতিক বাজার দখল করতে চাইছে। এই পদক্ষেপ আসলে চীনের অর্থনৈতিক কূটনীতির চাল মাত্র।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel