জেলাCorona Virus

করোনা রুগীর দেহ সৎকার করলেন পরিবারই! চরম গাফিলতির অভিযোগ

Corona’s family buried the patient’s family! Complaint of extreme negligence

বাঁকুড়া : রিক অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন এক ব্যক্তি। তাঁর শারীরে করোনা উপসর্গ থাকায়, করোনা পরীক্ষার জন্য লালা রসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। কিন্তু রিপোর্ট হাতে আসার আগেই মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। মৃতদেহও তুলে দেওয়া হয় পরিবারের হাতে। এমনই অভিযোগ উঠেছে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিকেল কলেজের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেল মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হন পুরুলিয়ার এক বাসিন্দা। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সে মারা যায়। এরপর মৃতদেহ পরিবারের হতে তুলে দেওয়া হয়। পরিবার মৃতদেহ সাধারণভাবে সৎকারও করে ফেলেন। বুধবার সকালে মৃত ওই ব্যক্তির করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

পজিটিভ রিপোর্টের ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই চারিদিকে হুলস্থূল পড়ে যায়। কারণ মৃতদেহ সৎকারে মানা হয়নি স্বাস্থ্যবিধি। এমনকি এই নিয়ে প্রশাসনের কাছেও কিছু জানানো হয়নি বলেই সূত্রের খবর।

এখন প্রশ্ন উঠছে কিভাবে ঘটলো এই ঘটনা?চিকিৎসকদের বক্তব্য, যদি কোন রোগীর কোভিড টেস্টের জন্য লালারস পাঠানো হয়ে থাকে এবং সেই রোগী যদি মারাও যায়, তবুও টেস্টের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় না। নেগেটিভ রিপোর্ট এলে তবেই পরিবার ওই রোগীর দেহ পায়। আর পজিটিভ এলে যাবতীয় স্বাস্থ্য বিধি মেনে মৃতদেহ সৎকার করা হয়। কিন্তু এই ক্ষেত্রে রিপোর্ট আসার আগেই পরিবারের হাতে মৃতদেহ তুলে দিল কিভাবে? উঠছে প্রশ্ন।
[qws]Tags:করোনা রুগীর দেহ সৎকার করলেন পরিবারই! চরম গাফিলতির অভিযোগ

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel