কলেজের নাম পরিবর্তন ও নিয়োগের দাবী জমিদাতা ও কুড়মি সেনার

Zamindata and Kurmi Sena demanded to change the name of the college and appoint it

নিজস্ব সংবাদদাতা, মানবাজার: রাজ্য সরকার ২০১৩ সালে মানবাজার-২ ব্লকে সরকারি কলেজ গড়ার কথা ঘোষণা করেন। তারপরেই জমির খোঁজখবর শুরু হয়।মানবাজার-২ (manabazar) তৃনমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব শুশুনিয়া গ্রামে জমি চিহ্নিত করেন। শুশুনিয়া (susunia) গ্রামের জমি দাতাদের কাছে থেকে চাকরি দেওয়ার শর্তে জমি গ্রহন করে।
কিন্তু, কলেজে বিনা নোটিশে কয়েকজন চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগ হলেও জমিদাতাদের পরিবার থেকে নেওয়া হয় নি বলেই অভিযোগ।


তৃনমুল নেতৃত্ব এই বিষয়ে উদাসীন। তাই ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে জমিদাতারা।পাশাপাশি নামকরণ নিয়ে বিভিন্ন সংগঠন দাবী করলেও তার,বিরোধিতা করেন জমি দাতারা।কারন, তারা চান কুড়মিদের জমিতে গড়ে ওঠা জমিতে কোন কুড়মি স্বাধীনতা সংগ্রামীর নামেই হোক। তাই, বীর শহীদ চূনারাম- গোবিন্দ মাহাতর নামে কলেজের নামকরণের পক্ষপাতি।


জমিদাতার দাবীর পক্ষে দাঁড়িয়েছে কুড়মি সেনা নামে সামাজিক সংগঠন।তারা নামকরন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী দপ্তর,শিক্ষা দপ্তর সহ জেলার মন্ত্রী শান্তিরাম মাহাত ও সন্ধ্যাটুডুকে আবেদন জানান।কুড়মি সেনা রবীন্দ্রনাথ মাহাত বলেন- “স্বাধীনতা সংগ্রামীর কোন জাত হয় না কিন্তু আমাদের সংগ্রামীদের এখনো সঠিক সম্মান থেকে বঞ্চিত তাই শুশুনিয়া গভঃ ডিগ্রী কলেজ বীর শহীদ চূনারাম- গোবিন্দ মাহাতর নামে নামকরণের দাবী করছি।”


জমিদাতা নিমাই মাহাত বলেন-” আমাদের জমিটা চাকরি দেওয়ার শর্তে নেওয়া হয়েছে, আমরা এখনো আশাবাদী। কিন্তু শর্ত মানা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের পথে হাঁটতে বাধ্য থাকব।”
[qws]Tags: আপডেট খবর,বাংলা খবর,করোনা আপডেট, আজকের রাশিফল, bengalinews, ভারতের খবর, আজকের খবর, আবহাওয়ার খবর,ঝাড়গ্রাম, উপকারিতা, দেশের খবর, আজকের নিউজ,

Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel