হারলেই চমক! অস্তিত্ব রক্ষায় এবারো চমক দিতে পারে বিজেপি

হারলেই চমক! অস্তিত্ব রক্ষায় এবারো চমক দিতে পারে বিজেপি 1
12 February 2020, 1:43 pm, 1122 Views

একটার পর একটা বিধানসভা নির্বাচনে হার, আর তারপরেই সংসদে চমক। দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হবার পরে এমনটাই দেখতে অভ্যস্ত ভারতবাসী।

এর আগে এভাবেই নাগরিক সংশোধনী বিল পাশ হয়েছে সংসদে। এবার কোন চমক রয়েছে, জানতে উদগ্রীব জনতা। গত সোমবার হঠাৎ দলের সমস্ত রাজ্যসভার সাংসদ কে হুইপ জারি করে বিজেপি। রাজ্যসভায় বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই। তাই অন্য দলের সাংসদ অনুপস্থিত থাকাকালীন বিল পাশ করানো হবে।

কিন্তু চমক আরো ছিল। সারাদিনে রাজ্যসভায় কোনো বিল জমা পড়েনি। এমনকি ২রা মার্চ অব্দি রাজ্যসভা বন্ধ থাকার কথা ঘোষণা করা হয়। গুজব কিন্তু থামেনি। সঙ্ঘের যেসমস্ত অপূর্ণ স্বপ্ন আছে, সেই জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন ও অভিন্ন দেওয়ানি বিধি নিয়ে গুজব ছড়িয়েছে। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ বিলের একটা অংশ ঘুরে বেড়াচ্ছে। GNEবাংলার পক্ষে সেটা যাচাই করে ওঠা সম্ভব হয়নি।

হারলেই চমক! অস্তিত্ব রক্ষায় এবারো চমক দিতে পারে বিজেপি 2

যেটুকু পাওয়া গেছে, তাতে পুরোটা পরিষ্কার হয়নি। তবে সরকার কর, চাকুরী, শিক্ষায় উৎসাহ দিতে এই বিল আনার কথা বলেছে। ছোট পরিবারের করার জন্য বিভিন্ন ভর্তুকি থেকে সরিয়ে রাখার কথা বলা হয়েছে। এটা বোঝা গেছে, সংবিধানের ৪৭ নং ধারায় জীবনযাত্রা উন্নত করতে যে সংকল্প নেওয়া আছে, তাতে এই অংশ জুড়ে দেওয়া হবে।

যেহেতু এটা রাষ্ট্র পরিচালনার নির্দেশমূলক নীতির অংশ হবে, তাই এটা কোনো নাগরিকের উপর জোর করে চাপানো হবে না। তাই এর প্রয়োগ বিজেপি সরকার কিভাবে করবে, সেটা ধোঁয়াশা। তবে অবিজেপি রাজ্য এই নীতির ব্যবহার করবে না, সেটা বলাই বাহুল্য। নীতি আয়োগের তথ্য অনুযায়ী বিজেপি শাসিত বিহার ও উত্তরপ্রদেশে যথাক্রমে ৩.৩ ও ৩.১ জন করে প্রতি মা সন্তান জন্ম দেন। আদিবাসীদের মধ্যে হার বেশি। তাই কিভাবে এটা প্রয়োগ হবে, সেটা ভবিষ্যত বলবে।

Leave a Comment.