জাতীয়

একই লিঙ্গের তরুনীকে লিভ-ইনে সম্মতি দিল ওড়িশা আদালত

Orissa court has granted leave to a young woman of the same sex

GNE NEWS DESK: সমকামী(Gay) তরুণীকে পার্টনারের সঙ্গে লিভ-ইন(Live in/together) করার আইনি স্বীকৃতি দিল ওড়িশা হাইকোর্ট(Orissa Court)। এক সঙ্গীর হেবিয়াস করপাস পিটিশনের শুনানিতে সোমবার এই রায় দিয়েছে ওড়িশার উচ্চ আদালতের বিচারপতি এসকে মিশ্র ও সাবিত্রী রাঠোরের ডিভিশন বেঞ্চ।

পিটিশনার অভিযোগ করেছিলেন যে, গত এপ্রিল মাসে ভুবনেশ্বরে জোর করে তার সঙ্গিনীকে আলাদা করে দেন তার মা। ২০১৪ সালে এনএএলএসএ মামলা অনুযায়ী, লিঙ্গ নির্ধারণে নিজের অধিকারের সপক্ষে যুক্তি দেখান পিটিশনার। তাঁকে যাতে পুরুষ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, সেই আর্জিও জানান তিনি।

ওই তরুণীর যুক্তি ছিল, তিনি ও তার সঙ্গিনী উভয়েই প্রাপ্তবয়স্ক। একই লিঙ্গের হওয়ায় তারা এখনই বিয়ে করতে চান না, তবু তাদের একসঙ্গে থাকার অর্থাত্‍‌ লিভ-ইন করার অধিকার রয়েছে। তিনি আরো বলেন যে, ২০০৫ সালের গার্হস্থ হিংসা আইনেও লিভ-ইন সম্পর্ককে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। যে কোনো লিঙ্গ নির্বিশেষেই নারী সঙ্গিনীকে একই অধিকার ও সুবিধা দেওয়া রয়েছে।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পিটিশনের সঙ্গিনী কী চান, তাও জেনে নেন বিচারপতিরা। এরপরই তাঁরা নজিরবিহীন এই রায় দিয়েছেন। আদালতে এ ব্যাপারে কোনো যুক্তি খাঁড়া করতে চায়নি ওড়িশা সরকার(Orissa Government)। তবে তারা আদালতের নির্দেশ মেনে চলবে বলে জানিয়েছেন।

আদালতের কাছে মেয়ের স্বার্থ ও সুরক্ষা সুনিশ্চিত করার জন্য আর্জি জানান পিটিশনারের সঙ্গিনীর মা। এরপর নিজেদের রায় শুনিয়ে আদালত জানায়, ‘সুপ্রিম কোর্টের(Supreme court) রায়ের নজির সামনে রেখে আদালত এটা মনে করে যে, পিটিশনারের নিজের লিঙ্গ নির্ধারণের অধিকার রয়েছে। পাশাপাশি তার পছন্দের সঙ্গী, যদি তিনি একই লিঙ্গের হন তার সঙ্গেও লিভ-ইন করার অধিকার তার রয়েছে। আমাদের বিশ্বাস পিটিশনার তার সঙ্গিনীকে নিয়ে সুখী জীবন কাটাবেন যাতে তাদের পরিবার ও সমাজ তাদের দিকে আঙুল তুলতে না-পারে।

Tags: একই লিঙ্গে লিভ ইন, সম্মতি দিল ওড়িশা আদালত

Tags
Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel
Close