রাজ্য

দুর্গাপুর ব্যারেজের ৩১ নং গেটের একাংশ ভেঙে বিপত্তি, সারাই কাজ সম্পন্ন না হলে মেজিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন বন্ধ হওয়ার সম্ভাবনা

GNE NEWS DESK: মাত্র তিন বছরের ব্যবধান ২০১৭ সাল থেকে ২০২০। দুর্গাপুর ব্যারাজের লকগেট ফের একবার ভাঙল। হাজার হাজার কিউসেক জল হু হু করে বেরিয়ে যাচ্ছে। সেচ দফতরকে জানানো হয়েছে যে, জলশূন্য হলেই সারানো যাবে লকগেট। তবে সেচমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন যে আজ সকালের মধ্যে মেরামতির কাজে হাত লাগানো হবে।

তবে এদিকে দুর্গাপুর এবং বাঁকুড়ায় এই জলই পরিশোধন করে পানীয় জল হিসেবে সরবরাহ করা হয় তাই আশঙ্কা দেখা দিয়েছে জল সংকটের। পাশাপাশি বন্যারও আশঙ্কা দেখা দিয়েছে হাওড়া আর হুগলিতেও। কারণ গেট মেরামতি করতে হবে জলাধার খালি করেই।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালের নভেম্বরে এই ব্যারেজের ১ নম্বর গেট ভেঙে পড়ায় সেই সময় জলশূন্য হয়ে পড়ে। পরে তা মেরামতি করা হয়। শনিবার ভোরে ফের নতুন করে ৩১ নম্বর গেট ভেঙে পড়ায় নতুন করে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী কমল ওঁরাও বলেন, ‘‘ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ শৌচকর্ম করতে গিয়েছিলাম। তখন হঠাৎ প্রচণ্ড জোরে একটা শব্দ শুনতে পাই। পরে দেখি গেট ভেঙে জল বেরিয়ে যাচ্ছে।’’ জানা গেছে মেজিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে জল সঙ্কট দেখা দিতে পারে। মাত্র দু’দিন উৎপাদন করার মতো জল স্টোরেজ রয়েছে। যদি দুর্গাপুর ব্যারেজ এর লকগেট দ্রুত সারাই করা না হয়। তাহলে উৎপাদন বন্ধ করতে হতে পারে মেজিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রেকে এমনটাই জানা গেছে।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel