রাজ্য

১০০ দিনের গ্রামীন কর্মনিশ্চয়তার প্রকল্পে এবার সেরার সেরা খেতাব আলিপুরদুয়ারের

GNE NEWS DESK : সোমবার আলিপুরদুয়ার জেলার জেলাশাসক সুরেন্দ্র কুমার মীনা জানিয়েছেন ১০০ দিনের গ্রামীন কর্মনিশ্চয়তা প্রকল্পে গোটা দেশের মধ্যে সেরা সম্মান পেয়েছে আলিপুরদুয়ার। জানা গেছে এর আগেও এই প্রকল্পে ভালো কাজ করার জন্য সম্মান পেয়েছিল উত্তরবঙ্গের এই জেলা। জেলা প্রশাসন মারফত জানা গিয়েছে ২০২০-২০২১ অর্থবর্ষে নির্ধারিত বাজেট অনুযায়ী আলিপুরদুয়ার কাজের নিরিখে গোটা দেশের মধ্যে সেরার সেরা সম্মান অর্জন করেছে। ২০২০-২০২১ বর্ষে আলিপুরদুয়ার জেলায় মহাত্মা গান্ধী জাতীয় গ্রামীণ কর্ম নিশ্চয়তা প্রকল্পে ১ কোটি ১০ লক্ষ ৪১৬ শ্রমদিবস এর টার্গেট করা হয়েছিল।

কিন্তু অর্থবর্ষ সমাপ্ত হওয়ার প্রায় ৪ মাস পূর্বেই এই জেলায় নির্ধারিত বাজেটের থেকে ২ শতাংশ বেশি কর্মদিবস তৈরি হয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে যেখানে অন্যান্য জেলা হিমশিম খাচ্ছে সেখানে আলিপুরদুয়ার প্রায় ১০২ শতাংশ কর্মদিবস তৈরি করেছে। আলিপুরদুয়ারে মোট ৬৬ টি গ্রাম পঞ্চায়েত রয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে প্রতি গ্রাম পঞ্চায়েতে গড়ে ১ লক্ষ ৭০ হাজার ৯৫২ শ্রমদিবস তৈরি হয়েছে। ২০২০ সালের ৩১শে অক্টোবর পর্যন্ত দেখা গিয়েছে এই জেলায় মোট ১ কোটি ১২ লক্ষ ৮২ হাজার ৮৪৩ টি শ্রমদিবস তৈরি হয়েছে। এই পরিসংখ্যানের নিরিখে আলিপুরদুয়ারকে সেরার সেরা শিরোপা দিয়েছে জেলা প্রশাসক। আলিপুরদুয়ারের ছটি ব্লকের মধ্যে প্রত্যেকটি ব্লকে গড়ে ১৫ লক্ষ শ্রম দিবস তৈরি হয়েছে।

এই জেলায় চলতি অর্থবর্ষে ২ লক্ষ ৫১ হাজার ৮৫ টি পরিবার চাকরি পেয়েছে। এই প্রথমবার আলিপুরদুয়ারের এতগুলি পরিবার এই প্রকল্পের অধীনে কাজ পেয়েছে। এই প্রকল্পের পেছনে আলিপুরদুয়ার মোট ৩৫০ কোটি টাকা খরচ করেছে। আলিপুরদুয়ার জেলাশাসক সুরেন্দ্র কুমার মীনার বক্তব্য, “গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে জেলা স্তর পর্যন্ত এই প্রকল্পের অধীনে বিভিন্ন সরকারি কর্মচারী থেকে শুরু করে সকল কর্মচারীরা খুব ভালো কাজ করছেন। সাধারণ মানুষরাও আমাদের নানান ভাবে সহযোগিতা করেছেন। তাই আমি সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি এই সাফল্য শুধু আমাদের একার না এই সাফল্য সকলের”। আলিপুরদুয়ারের এই সফলতা নিয়ে হৈচৈ পড়ে গেছে সারা দেশজুরে।

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel