রাজ্যরাজনীতি

বাঁকুড়ায় মূর্তিতে অমিত শাহের মাল্যদান করার পর সেই মূর্তি দুধ দিয়ে সাধিত করলো তৃণমূল

GNE NEWS DESK: পাল্টা কর্মসূচি নিল শাসক তৃণমূল তাও আবার বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি ও দেশের বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বাঁকুড়া সফর শেষ করে ফিরে যাওয়ার মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যেই। অভিযোগ ওঠে ‘আদিবাসী সমাজের ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে। বিরসা মুণ্ডা নয়, একজন আদিবাসী শিকারীর মডেলে মালা দিয়েছেন অমিত শাহ।

দলের বাঁকুড়া জেলা সভাপতি শ্যামল সাঁতরা তারপর শুক্রবার ঐ ‘অপবিত্র মূর্তি ‘গঙ্গাজল আর দুধ দিয়ে ধুয়ে পবিত্র’ করার কাজে হাত লাগালেন বাঁকুড়া শহর সংলগ্ন পুয়াবাগান চৌরাস্তার মোড়ে মোড়ে। তৃণমূল নেতা ও জেলা পরিষদের সভাধিপতি মৃত্যুঞ্জয় মুর্ম্মু, জেলা পরিষদের ‘মেন্টর’ অরুপ চক্রবর্ত্তী, বিধায়ক শম্পা দরিপা সহ জেলা তৃণমূল নেতৃত্বও সেই কর্মসূচি তে উপস্থিত ছিলেন।

তৃণমূলের ঐ কর্মসূচীতে চতুরডিহি গ্রামের ‘মাঝি’ অমূল্য হাঁসদা বলেন, “এই মূর্তিটি বিরসা মুণ্ডার নয়। যেহেতু মূর্তির নিচে কারো নাম লেখা নেই তাই প্রতিবাদ জানাতেও পারিনি। এই মূর্তিতে বিরসা মুণ্ডার নাম করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী যেহেতু মালা দিয়েছেন, তাই মনে করি এই জায়গা কলুষিত হয়েছে। সেকারণেই তারা গঙ্গাজল আর সেই কারণেই দুধ দিয়ে ‘শোধন’ করলাম।”

এদিকে শ্যামল বাবু জানান ‘ভগবান পরিবর্তনের খেলায় মেতেছে বিজেপি’। বিরসা মুণ্ডা নামে যে মূর্তিতে বিজেপি নেতৃত্ব মালা দিলেন তা ওনার নয়। রাস্তা সৌন্দর্যায়নের জন্য একজন শিকারীর মূর্তি রয়েছে এখানে। আর তাকেই বিরসা মুণ্ডা বলে ওনারা মালা দিলেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘কয়েক দিন পরে হয়তো দুর্গা মুর্তি সরিয়ে রামের মূর্তি বসিয়ে দেবে। বাংলার কৃষ্টি, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য সহ মনিষীদের বিষয়ে ওয়াকিবহাল নয়, ভোট সর্বস্ব রাজনীততেই ব্যস্ত। মেকি দলিত প্রেম দেখিয়ে এই এলাকাকে ‘অপবিত্র’ করা হয়েছে।’

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel