প্রথম পাতা ভোট বাংলা আজকের রাশিফল সকালের বাংলা কর্ম সন্ধান পশ্চিম বাংলা বাংলার জেলা ভারতবর্ষ বিশ্ব বাংলা খেল বাংলা প্রযুক্তি বাংলা বিনোদন বাংলা        লাইফস্টাইল বাংলা EXCLUSIVE বাংলা GNE TV
রাজ্য

স্বাস্থ্যসাথী : বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমের দাবি মেনে সরকারি চিকিৎসার দর বৃদ্ধি রাজ্য সরকারের

GNE NEWS DESK: স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের মাধ্যমে বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমে চিকিৎসা নিশ্চিত করতে বেশ কিছু সরকারি স্বাস্থ্য প্রকল্পের খরচ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত প্রায় ৬০ শতাংশ প্যাকেজের খরচ ১০-১৫ শতাংশ বৃদ্ধি করল রাজ্য।

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের মাধ্যমে বেসরকারি স্বাস্থ্যক্ষেত্রগুলিকে চিকিৎসা নিশ্চিত করতে রাজ্য অনুরোধ করলে, বেসরকারি হাসপাতাল এবং নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ সরকারকে অনুরোধ করে চিকিৎসার দর পরিমার্জন করার জন্য। তার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাজ্যের সমস্ত বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমগুলির সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং স্বাস্থ্যসচিব স্বরূপ নারায়ণ নিগম। এরপরেই দর পরিমার্জনের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

সংশোধিত তালিকা অনুযায়ী, সাধারণ চিকিৎসার সরকারি দর ২০% বাড়ানো হয়েছে। হৃদযন্ত্রের চিকিৎসা বাবদ দর বেড়েছে ২৫%। সাধারণ অস্ত্রোপচারের সরকারি দর ১৫-২০% বাড়ানো হয়েছে। খুব প্রচলিত ১০৫টি প্যাকেজের মধ্যে ৬০% ক্ষেত্রে পরিমার্জন করা হয়েছে। এই পরিমার্জনের ফলে সার্বিক ভাবে ৭-১০% বা ২০০ কোটি টাকা খরচ বাড়বে রাজ্য সরকারের।
দর বাড়ছে জরুরী পরিষেবার ক্ষেত্রেও। আইসিইউ পরিষেবার গ্রেড-এ এবং গ্রেড-বি-এর ক্ষেত্রে দর বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে যথাক্রমে ৩৩০০ এবং ১৮০০ টাকা।
জেনারেল সার্জারির বিভিন্ন বিভাগে সরকারি দর ছিল ১৪ হাজার ৪০০ টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত। তা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১৫ হাজার ৫০০ টাকা থেকে ৩৫ হাজার টাকা।

রাজ্যের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত ২ কোটির বেশি পরিবার স্বাস্থ্যসাথীর আওতায় এসেছেন। এখন দৈনিক প্রায় ৩৭০০ মানুষ স্বাস্থ্যসাথীর পরিষেবা নিচ্ছেন। ফলে এই প্রকল্পে প্রত্যহ সরকারের খরচ হচ্ছে প্রায় ৭ কোটি টাকা। এখনও পর্যন্ত স্বাস্থ্যসাথীর অন্তর্ভুক্ত হয়েছে ১৫৩৭টি বেসরকারি হাসপাতাল।

মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, হাসপাতাল-নার্সিংহোমের পরিচালকদের সঙ্গে পরামর্শ করে স্বাস্থ্যসাথীর বিভিন্ন প্যাকেজ-দর পরিমার্জন করা হবে। প্রত্যেকের প্রতি আবেদন ছিল, স্বাস্থ্যসাথীর পরিষেবা দিন। রোগী ফেরাবেন না। তাঁদের দাবি ছিল, চিকিৎসা-দর যেন বাণিজ্যসম্মত হয়, ক্ষতিকারক না হয়। উভয়পক্ষের আলোচনার পরে কিছু প্যাকেজে কিছু বাড়ানো গিয়েছে। ডিসচার্জ এবং অ্যাপ্রুভালের পদ্ধতি দ্রুততর করবে সরকার।”
মুখ্যসচিব আরও জানান, “স্বাস্থ্যসাথীর জন্য বার্ষিক আড়াই থেকে তিন হাজার কোটি টাকা কোষাগার থেকে খরচ হবে।”

Advertisement with GNE Bangla

একই রকমের খবর

Back to top button
Use GNE Bangla App Install Now
Subscribe YouTube Channel